এসডিজি অর্জনে সঠিক পথেই হাঁটছে বাংলাদেশ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৫০ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৯

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য (এমডিজি) সফলভাবে অর্জনের পাশাপাশি বাংলাদেশ এখন এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা-২০৩০ অর্জনের দিকে সঠিক পথেই রয়েছে। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে গেছে, মানুষের মাথাপিছু আয় এখন ১৮৮৮ মার্কিন ডলার, জিডিপিতে বর্তমান প্রবৃদ্ধি ৮.১৩ শতাংশ। এর পাশাপাশি দেশের স্বাস্থ্যখাতে ব্যাপক উন্নতি ঘটছে। শিশুমৃত্যু হার, মাতৃমৃত্যু হার উল্লেখযোগ্যভাবে কমেছে।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সকালে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সেবায় লক্ষ্যমাত্রা-২০৩০ অর্জন বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক সেবার মাধ্যমে বর্তমানে বাংলাদেশে ঘরে ঘরে স্বাস্থ্যসেবা চলে গেছে। বর্তমানে দেশের ৮ বিভাগে ৮টি ক্যান্সার হাসপাতাল নির্মাণ কাজ, লিভার সিরোসিস রোগের জন্য আলাদা হাসপাতাল নির্মাণ কাজের প্রক্রিয়া দ্রুত এগিয়ে চলছে। যেভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্ব দিচ্ছেন, তাতে এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা বাংলাদেশ ২০৩০ সালের বেশ আগেই পৌঁছে যাবে।

malek-health-2

বিশ্ব স্বাস্থ্য উন্নয়নে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের কাছে চারটি মূল বিষয় তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বৈষিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে গোটা বিশ্ব এক ছাতায় চলে আসতে হবে। স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় আরও অগ্রগতি আনতে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সাথে ইউনিভার্সেল হেলথ কভারেজ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তিন বিলিয়ন টার্গেট একত্রিকরণ ও স্বাস্থ্যকর পৃথিবী এ চারটি বিষয়কে গুরুত্ব দিতে হবে।

ভারতের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষা বর্ধনের সভাপতিত্বে সম্মেলনে নেপালের স্বাস্থ্য বিষয়ক মন্ত্রী উপেন্দ্র কুমার যাদব, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের আঞ্চলিক প্রতিনিধি ড. পুনম ক্ষেত্রপালসহ অন্যান্য দেশ থেকে আগত স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞ, চিকিৎসক, বিভিন্ন সংস্থা প্রধান, বিভিন্ন দেশের সরকারি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সাথে উপস্থিত ছিলেন।

এমইউ/আরএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]