বাস ফিরেছে সড়কে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৫০ পিএম, ২২ নভেম্বর ২০১৯

নতুন সড়ক আইনের বিরোধিতা করে গেল কয়েকদিন রাজধানী ঢাকা শহরে গণপরিবহন চলাচল ছিল সীমিত। দূরপাল্লার বাসও চলেছে অল্প পরিসরে। হঠাৎ এমন কর্মসূচিতে ঘর থেকে বের হয়ে বিপাকে পড়তে হয় অনেককে। এরইমধ্যে শুক্রবার স্বাভাবিক ধারায় ফিরেছে রাজধানীতে গণপরিবহন চলাচল; যদিও সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় এ দিন সড়কে গণপরিবহনের সংখ্যা স্বাভাবিক কর্মদিবসের তুলনায় কমই থাকে।

বুধবার গভীর রাতে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিক-শ্রমিকেরা সারা দেশে পণ্য পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহারের ঘোষণা দিলেও বৃহস্পতিবার ঢাকার সড়কগুলোতে গণপরিবহনের কমতি তো ছিলও, দূরপাল্লার বাসও স্বাভাবিকভাবে চলেনি।

পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, ছুটির দিনে যানবাহন চলাচল ও যানজট না থাকলেও আজ একটু ভিন্নচিত্র। দূরপাল্লার বাস চলছে। চলছে আন্তঃজেলা ও রাজধানীতে চলাচলকারী বিভিন্ন রুটের গণপরিবহন।

bus-dhaka

রাজধানীর মিরপুর, গাবতলী, কল্যাণপুর শ্যামলী, কলেজগেট এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, চলাচল করছে বিভিন্ন রুটের গণপরিবহন। চলছে ট্রাক-কাভার্ডভ্যানও।

গাবতলীতে আসছে সব জেলার যাত্রীবাহী বাস। আন্তঃজেলার যাত্রীবাহী বাসও ঢুকছে রাজধানীতে। সিগন্যালগুলো চাপ না থাকলেও কিছু সময়ের জন্যও আটকা দেখা যায় পরিবহনগুলো।

বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব মো. তাজুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, আমাদের দাবি-দাওয়া মেনে নেয়ায় কর্মবিরতি প্রত্যাহার করা হয়েছে। শ্রমিকরা কর্মে ফিরেছে। সকাল থেকে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান চলাচল করছে। বাস মালিকরা বিভিন্ন জেলায় বাস চলাচল শুরু করেছেন।

সায়েদাবাদ আন্তঃজেলা বাস-মালিক সমিতির সভাপতি আবুল কালাম জানান, সায়েদাবাদ থেকে সব রুটে পরিবহন ছেড়ে যাচ্ছে। কোথাও কোনো সমস্যা নেই।

bus-dhaka

মহাখালী বাস টার্মিনাল মালিক সমিতির সভাপতি হাজি আবুল কালাম বলেন, নওগাঁ ও চুয়াডাঙ্গায় আন্তঃজেলা ও ।অভ্যন্তরীণ রুটে যানচলাচল বন্ধ রেখেছে স্থানীয়রা পরিবহন মালিক শ্রমিকরা। তাছাড়া আর কোথাও কোনো সমস্যা নেই।

ডিএমপির ট্রাফিক উত্তরের উপ-কমিশনার (ডিসি) প্রবীর কুমার দাস বলেন, সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক। তবে সাপ্তাহিক ছুটির দিনে যানবাহনের সংখ্যা কম থাকলেও আজ বেশি মনে হচ্ছে।

মিরপুর টেকনিক্যাল এলাকার ট্রাফিক সার্জেন্ট মাসরেকুল জানান, এ এলাকায় যানজট নেই, যান চলাচলও স্বাভাবিক।

ট্রাফিক দক্ষিণ বিভাগের রমনা এলাকার সহকারী কমিশনার রেফাতুল ইসলাম জানান, ছুটির দিনে অফিস আদালত বন্ধ থাকে। যান চলাচল স্বভাবত কমে যায়। তবে আজ শুক্রবার হলেও চিত্র ভিন্ন। যানচলাচল অন্যদিনের মতো। সাত কলেজের পরীক্ষা ও চাকরির পরীক্ষার কারণে এমনটা হতে পারে।

জেইউ/এনএফ/পিআর