বাণিজ্যিকভাবে ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যানেল করের আওতায় আসবে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:০৫ পিএম, ০২ ডিসেম্বর ২০১৯

বাণিজ্যিকভাবে পরিচালিত ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যানেল করের আওতায় আসবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

সোমবার সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে তথ্যমন্ত্রী একথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, ‘মোবাইল কোম্পানিগুলো নানা ধরনের ভিডিও কনটেন্ট আপলোড করে। তারা ইউটিউব ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তা ছাড়ছে আবার সেখানে বিজ্ঞাপনও নিচ্ছে। তারা সেখানে ব্যবসা করছে। এটির লাইসেন্স তাদের দেয়া হয়নি। তাদের মোবাইল নেটওয়ার্ক পরিচালনার লাইসেন্স দেয়া হয়েছে।’

মোবাইল কোম্পানিগুলোর এ কার্যক্রম বন্ধের জন্য ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগকে চিঠি দেয়া হয়েছে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আমরা বলেছি। আমরা আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকেও বিষয়টি আলোচনা করেছি। এটিও শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে আমরা বদ্ধপরিকর। কারণ, এভাবে যে কেউ চাইলেই যে কোনো কিছু লাইসেন্সবিহীন করতে পারে না।’

অনেকে ব্যক্তিগতভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলছেন, এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বাণিজ্যিক উদ্দেশ্য ছাড়া যে কেউ ফেসবুকের মতো পারসোনাল ইউটিউব চ্যানেল খুলতে পারবেন।’

তিনি বলেন, ‘আমরা ফেসবুক, ইউটিউব সবার সঙ্গে আলোচনা করেছি, তাদের মাধ্যম ব্যবহার করে যে ব্যবসা হচ্ছে, বিজ্ঞাপন যাচ্ছে, সেগুলোতে ভ্যাট আরোপ করার জন্য তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। আমরা এনবিআরের সঙ্গেও কথা বলেছি।’

‘তবে বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে করলে সেক্ষেত্রে দেশের ট্যাক্সেসন আইন মেনে করতে হবে’ বলেন হাছান মাহমুদ।

বিদেশি সিরিয়াল যাচাইয়ে কমিটি

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিভিন্ন টেলিভিশনে ডাবিং করা সিরিয়াল প্রচার করা হচ্ছে; সেগুলোর জন্য আমরা অনুমতি নেয়ার বাধ্যবাধকতা আরোপ করেছি। অনেকগুলো অনুমতির জন্য দরখাস্ত করেছে। আমরা অনেকগুলো দরখাস্ত নিষ্পত্তি করেছি। কিন্তু এগুলো একটি পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে যাওয়া প্রয়োজন।’

এজন্য ইতোমধ্যে একটি বাছাই কমিটি গঠন করা হয়েছে জানিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘গত ২৭ নভেম্বর এর প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। সরকারের একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে একটা হবে। এখানে বিশিষ্ট নাট্যব্যক্তিত্ব মামুনুর রশীদ, বিশিষ্ট নাট্যজন সারা যাকের, অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্সের (অ্যাটকো) একজন প্রতিনিধি, ডিরেক্টরস গিল্ডের একজন প্রতিনিধি, অভিনয় শিল্পী সংঘের একজন প্রতিনিধি থাকবেন। তথ্য মন্ত্রণালয়ের একজন উপসচিব সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবেন।’

তিনি বলেন, ‘এখন থেকে কোনো চ্যানেলে যদি বিদেশি ডাবিং করা সিরিয়াল প্রচার করতে হয় তবে তা মন্ত্রণালয়ে আবেদনের পর এই কমিটির কাছে আসবে। কমিটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও যাচাই-বাছাই করে আমাদের দেশের ও আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে নতুন প্রজন্মের মনন তৈরিতে বা সমাজে কোন বিরূপ প্রতিক্রিয়া ফেলছে কি না- এ বিষয়গুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে অনুমোদন দেবে।’

বিভিন্ন সংগঠন ধর্মঘট করছে। এর পেছনে অন্য কিছু আছে কি না- জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, ‘ধর্মঘট তো বাংলাদেশে প্রথম হচ্ছে না। সব সময়ই ধর্মঘট হয়, উন্নত রাষ্ট্রগুলোতেও ধর্মঘট হয়। এ যে বিভিন্ন ধরনের ধর্মঘট নানা অজুহাতে নানা ছলছুতোয় ধর্মঘট করার হুমকি কিংবা ধর্মঘটে যাওয়া, এটির পেছনে অন্য কোনো উদ্দেশ্য আছে কি না, সেটি নিশ্চয়ই সরকার খতিয়ে দেখবে।’

আরএমএম/জেএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]