হজের কোটা কে নির্ধারণ করে?

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৯ এএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

ইসলামের মূল পঞ্চ ভিত্তির অন্যতম হজ। ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা মনে করেন হজ আল্লাহর একটি বিশেষ বিধান, আল্লাহ হজ পালনের মধ্যে মহান উদ্দেশ্য নিহিত রেখেছেন। মুসলিমদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় জমায়েত হলো এই হজ হজ। প্রতিবছর হাজীর সংখ্যা বাড়ছে।

তবে তারপরও অভিযোগ রয়েছে- অনেক মুসলিম তাদের ইচ্ছে অনুযায়ী নির্দিষ্ট বছর হজে যেতে পারেন না। যেহেতু সারা বিশ্ব থেকেই মুসলিমরা হজ করতে যান তাই একটি বছরে কোন দেশ থেকে কত মানুষ হজ করতে পারবেন, তার একটি কোটা তৈরি করে দেয় মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশগুলোর সংগঠন অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশন বা (ওআইসি)। বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং মালয়েশিয়ার মতো বেশ কিছু দেশ প্রতিবছরই কোটা বাড়ানোর অনুরোধ করে আসছে।

২০২০ সালের জন্য বাংলাদেশ এবং সৌদি আরবের মধ্যে হজ সংক্রান্ত যে চুক্তি সাক্ষর করা হয়েছে সেখানে বাংলাদেশিদের হজ কোটা ১০ হাজার বৃদ্ধি করা হয়েছে। অর্থাৎ আগামী বছর ১ লাখ ৩৭ হাজার বাংলাদেশি হজে যেতে পারবেন

২০১৯ সালে ভারত থেকে হজের কোটা বাড়ানো হয়েছে। এটি ১ লাখ ৭০ হাজার থেকে বাড়িয়ে দুই লাখ করা হয়েছে। পাকিস্তান থেকেও দুই লাখ মুসলিম হজ করতে গেছেন। যদিও ২০২০ সালের জন্য এই সংখ্যা আরও ২০ হাজার বাড়ানোর দাবি করেছে পাকিস্তান। মালয়েশিয়া থেকে ২০১৯ সালে প্রায় ৩০ হাজার মুসলিম হজ পালন করতে গিয়েছিলেন। মালয়েশিয়াও এ কোটা বাড়ানোর দাবি করেছে।

হজের জন্য সৌদি আরববে ব্যাপক আয়োজন করতে হয়।

এনএফ/এমএস