বিচার শেষ না হওয়া পর্যন্ত পুলিশকে মামলা মনিটরের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২১ পিএম, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯

দেশের চাঞ্চল্যকর মামলাসমূহের নিবিড় তদারকির জন্য মাঠ পর্যায়ের পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। এছাড়াও এসব মামলার বিচার শেষ না হওয়া পর্যন্ত মনিটর করার ওপরও গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত দিনব্যাপী ‘পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স কোয়ার্টারলি কনফারেন্স’-এ তিনি এ নির্দেশ দেন।

সভায় সব রেঞ্জ ডিআইজি, মেট্রোপলিটনের কমিশনার ও জেলার পুলিশ সুপারগণ অংশগ্রহণ করেন।

আইজিপি বলেন, ‘থানাকে জনগণের আস্থায় আনার লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। থানায় আসা জনগণের সঙ্গে ভালো আচরণ করতে হবে। তাদের সেবা প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে হবে। পুলিশের কাজে জনগণকে সম্পৃক্ত করতে হবে। পুলিশ সম্পর্কে জনগণের মাঝে ইতিবাচক ধারণা তৈরিতে সকলকে সচেষ্ট থাকতে হবে।’

পুলিশপ্রধান বলেন, “মাদকের বিরুদ্ধে আমরা ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি ঘোষণা করেছি। মাদকের সঙ্গে কারো সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেলে তিনি যেই হোক না কেন, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোনো পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মাদকের অভিযোগ প্রমাণিত হলে কোনো ছাড় দেয়া হবে না।”

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে দেশে জঙ্গি তৎপরতা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিটসহ অন্যান্য ইউনিটকে সমন্বিত হয়ে কাজ করতে হবে। জঙ্গিদের কার্যক্রম এবং তাদের অবস্থান সম্পর্কে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করতে হবে।’

সভায় অ্যান্টি-টেররিজম ইউনিটের নতুন ওয়েবসাইট ও অ্যাপস ‘ইনফোর্ম এটিইউ (Inform ATU)’ উদ্বোধন এবং বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমির জার্নালের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

সভায় সারদার বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমির প্রিন্সিপ্যাল মোহাম্মদ নাজিবুর রহমান, র‌্যাবের মহাপরিচালক ড. বেনজীর আহমেদ, অতিরিক্ত আইজি (এএন্ডও) ড. মো. মইনুর রহমান চৌধুরী, অ্যান্টি-টেররিজম ইউনিটের প্রধান মোহাম্মদ আবুল কাশেম, রেলওয়ে রেঞ্জের অতিরিক্ত আইজি মো. মহসিন হোসেন, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের অতিরিক্ত আইজি আবদুস সালাম, ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম, সিআইডির অতিরিক্ত আইজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এআর/এফআর/জেআইএম