‘শ্রমিকদের খুশি রাখতে তার কিছু কথা বলতে হয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০২ পিএম, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯

নারায়ণগঞ্জের এক অনুষ্ঠানে সম্প্রতি বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি শাহজাহান খান সড়কে দুর্ঘটনা ও সড়ক নিরাপত্তা আইন নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন ধরেই অনেক কিছু হজম করেছি। এখন বদ হজম হয়ে গেছে। সেজন্য কিছু সত্য কথা বলতে হবে। তবে সত্য বললে সরকারের ঘাড়ে যাবে, নয়তো বিআরটিএ-এর ঘাড়ে যাবে। আর না বললে আমরা পাবলিকের গালি খাব।’

আওয়ামী লীগের সাবেক মন্ত্রী ও সড়ক পরিবহন শ্রমিক নেতা শাজাহান খানের এমন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নের মুখোমুখি হন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘শ্রমিকদের খুশি রাখতে তার কিছু কথা বলতে হয়।’

‘বক্তৃতার ভাষাটা ভিন্ন। ওখানে তিনি শ্রমিক ফেডারেশনের নেতা। সেই হিসেবে তাদেরকে খুশি রাখতেও তার কিছু কথা বলতে হয়। আমাদের কাছে তো এসব কথা বলে না।’

তিনি বলেন, ‘সেখানে হয়তো তাকে বলতে হয়, বলার জন্য। এখানে হয়তো আমাদের কাছেও বলবেন আমাকে তো....।’

এর আগে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) আন্দোলনের চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চনের বিরুদ্ধেও বিরূপ মন্তব্য করেন এ শ্রমিক নেতা। তিনি বলেন, ‘নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের নামে ইলিয়াস কাঞ্চন অর্বাচীনের মতো কথাবার্তা বলেন। দক্ষ চালক তৈরিতে তাদের কোনো ভূমিকা নেই। বরং নামে-বেনামে ইলিয়াস কাঞ্চন নানা অনিয়ম করেন। এগুলো জনসম্মুখে তুলে ধরা হবে, তার মুখোশ উন্মোচন করা হবে।’

সরকার বিপদে পড়েছে কি-না, এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সরকারের বিপদে পড়ার কোনো বিষয় নেই। সরকার সরকারের সঠিক পথেই আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে নির্দেশ দেবেন সেভাবে সরকার চলবে, আইনের বাস্তবায়নও হবে। এখানে কারও ইচ্ছায় কোনো কিছু... আমি মন্ত্রী, আমার ইচ্ছায়ও হবে না। আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে।’

আরএমএম/এসআর/এমএআর/পিআর