গ্রামীণফোন-চ্যানেল আইয়ের বিজয় মেলা ১৬ ডিসেম্বর

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৪৫ পিএম, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

গ্রামীণফোন ও চ্যানেল আইয়ের যৌথ উদ্যোগে আগামী ১৬ ডিসেম্বর বিজয় মেলা অনুষ্ঠিত হবে। বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে এ মেলা হবে।

শনিবার চ্যানেল আই কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মলেন এ তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মলেনে উপস্থিত ছিলেন চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা ও চিত্রপরিচালক নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু, রবীন্দ্র সংগীতশিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, সংগীতশিল্পী ফকির আলমগীর এবং গ্রামীণফোনের হেড অব রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড অ্যাক্টিং হেড অব কমিউনিকেশন্স হোসেন সাদাত।

ওইদিন বেলা ১১টা ৫ মিনিটে লাল সবুজ বেলুন উড়িয়ে মেলার উদ্বোধন করা হবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন যুদ্ধাহত ও খেতাবধারী মুক্তিযোদ্ধা, স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের সদস্য, গ্রামীণফোনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, চ্যানেল আইয়ের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বসহ দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।

অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক পর্বে রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, রফিকুল আলম এবং ফকির আলমগীরের মতো গুণী শিল্পীরা গান পরিবেশন করবেন। এ ছাড়া মেলায় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পীরা গান পরিবেশন করেন।

মেলায় ‘আমি বাংলাদেশ’ শিরোনামে মাইম শো, সেলেব্রিটি টক এবং টকশোর আয়োজন করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর বিজয় মেলার বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন। তিনি বলেন, প্রতিবারের মতো এবারও বিজয়ের আনন্দ সবার মধ্যে ভাগ করে দিতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে চ্যানেল আই। চ্যানেল আইয়ের দর্শকরা সকাল থেকে বিজয় মেলা লাইভ দেখতে পারবেন। মেলা ছাড়াও বিজয়ের দিনে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সিনেমা, নাটক ও গান প্রচারিত হবে।

গ্রামীণফোনের হোসেন সাদাত বলেন, গ্রামীণফোন বাংলাদেশের সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় সঙ্গী হিসেবে রয়েছে। স্বাধীনতা দিবস, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, বুদ্ধিজীবী দিবসসহ দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিবসে বাংলাদেশের জনগণকে সম্পৃক্ত করে গ্রামীণফোন নানা ধরনের কর্মসূচি পালন করে আসছে। এবারের বিজয় মেলায় গ্রামীণফোনেরও নানা আয়োজন থাকবে। আমরা আশা করি, চ্যানেল আইয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশের সবাই বিজয়ের আনন্দ উপভোগ করবেন।

আরএম/জেডএ/জেআইএম