শীতজনিত রোগে আক্রান্ত পৌনে ৪ লাখ, ৫৪ জনের মৃত্যু

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:১৫ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২০

শ্বাসতন্ত্রে সংক্রমণ (একিউট রেসপিরেটরি ইনফেকশন-এআরআই), ডায়রিয়া ও শীতজনিত বিভিন্ন রোগে গত আড়াই মাসে রাজধানীসহ সারাদেশে পৌনে চার লাখেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন ৫৪ জন। এর মধ্যে এআরআইজনিত কারণে ২০ জন, ডায়রিয়ায় চারজন এবং শীতজনিত অন্যান্য রোগ যেমন- জন্ডিস, আমাশয়, চোখের প্রদাহ, চর্মরোগ ও জ্বরাক্রান্ত হয়ে ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমারজেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের সহকারী পরিচালক ডা. আয়শা আক্তার এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, গত ১ নভেম্বর থেকে কন্ট্রোল রুমে এআরআই, ডায়রিয়া ও অন্যান্য রোগব্যাধি সম্পর্কে তথ্য হালনাগাদ করা হচ্ছে। গত আড়াইমাসের মধ্যে নভেম্বরে এআরআইয়ে ২৫ হাজার ৯৩৭ জন, ডায়রিয়ায় ২২ হাজার ৪৫৯ জন ও অন্যান্য রোগে ১১ হাজার ৬৮৮ জন আক্রান্ত হন। একই সময়ে ২০ জন মারা যান। এর মধ্যে ১৫ জন এআরআইতে, দুইজন জন ডায়রিয়ায় এবং তিনজন অন্যান্য রোগে মারা যান।

ডিসেম্বর মাসে এআরআইয়ে ৬৬ হাজার ২৪২ জন, ডায়রিয়ায় ৫৩ হাজার ৬২০ জন ও অন্যান্য রোগে ২৬ হাজার ৭১২ জন আক্রান্ত হন। এ সময়ে চারজন মারা যান। এ চারজনই এআরআইতে আক্রান্ত ছিলেন।

এছাড়া চলতি ১-১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এআরআইতে ৫৬ হাজার ৫৭২ জন, ডায়রিয়ায় ৭৬ হাজার ১৫ জন এবং অন্যান্য রোগে ৩৮ হাজার ৫৬৩ জন আক্রান্ত হন। এ সময় ৩০ জনের মৃত্যু হয়। মোট মৃতদের মধ্যে এআরআইতে ২৯ জন ও ডায়রিয়ায় একজন মারা যান।

সবমিলিয়ে গত বছরের ১ নভেম্বর থেকে আজ বুধবার পর্যন্ত শীতজনিত রোগে মোট ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৮০৮ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে এআরআইতে ১ লাখ ৪৮ হাজার ৭৫১ জন, ১ লাখ ৫২ হাজার ৯৪ জন এবং অন্যান্য রোগে ৭৬ হাজার ৯৬৩ জন।

এমইউ/এফআর/এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]