এ যেন ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫৯ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২০

রাজধানীতে চলছে ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা। ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার প্রযুক্তির মহাসড়ক’ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে এই মেলা।

তিন দিনব্যাপী এ মেলার দ্বিতীয় দিন শুক্রবার। বাণিজ্য মেলা সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ মেলায় সকাল থেকেই ছিল লোকে লোকারণ্য। অনেকে মনে করছেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলায় বাণিজ্যমেলার প্রভাব পড়েছে। বাণিজ্য মেলায় আগত অনেক দর্শনার্থী অনেকটা উৎসুক হয়ে প্রবেশ করছেন এ মেলায়ও। উৎসুক দর্শনার্থীদের ভিড়ে মেলাপ্রাঙ্গণ টইটুম্বুর।

রাজধানীর উত্তরা থেকে ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলায় আসা শাহনাজ পারভীন বলছিলেন, বাণিজ্য মেলায় এসেছিলাম সকাল সকাল। দুপুর গড়াতেই বাণিজ্য মেলার মাঠ ত্যাগ করে প্রবেশ করি ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলায়। এই মেলার আয়োজন অসাধারণ মনে হচ্ছে। প্রবেশদ্বার থেকে শুরু করে মেলার স্টলগুলো মনে হচ্ছে ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি।

আইরিন সুলতানা নামে আরেক দর্শনার্থী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা সত্যি ডিজিটাল মনে হচ্ছে। স্টলগুলোর সাজানো, আলোর বিচ্ছুরণ যেন ভিন্ন আবেশ তৈরি করেছে।

digital-1

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) এ মেলার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। মেলার আয়োজক ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ।

ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা উপলক্ষে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলাতে প্রথমবারের মতো পঞ্চম প্রজন্মের (ফাইভ–জি) মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির বিভিন্ন দিক দেখানো হচ্ছে। এটি আমাদের জন্য অনেক বড় অর্জন। ডিজিটাল প্রযুক্তির মহাসড়ক বিনির্মাণে অগ্রগতি, চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা এবং পরিবর্তিত বিশ্বে নতুন সভ্যতার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, আইওটি, রোবটিকস, বিগডেটা, ব্লকচেইন ও ফাইভ–জির বিস্ময়কর প্রভাব এ মেলায় ফুটে উঠছে বলে আমার বিশ্বাস।

উল্লেখ্য, মেলায় ইন্টারনেট সংযোগদাতাসহ ৮২টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। প্যারেন্টাল কন্ট্রোল, ট্রিপল প্লে (এক কেবলে ফোন লাইন, ইন্টারনেট ও টেলিভিশন সংযোগ), মোবাইল অ্যাপ, ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা ও নতুন ডিজিটাল প্রযুক্তি সেখানে প্রদর্শন করা হবে। জেডটিই, হুয়াওয়ে, নকিয়া ও এরিকসন তাদের ফাইভ–জি প্রযুক্তি প্রদর্শন করছে মেলায়।

আরএম/জেডএ/পিআর