হালনাগাদ ভোটার তালিকা ভুল এলে সংশোধন করবেন যেভাবে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৩৯ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২০

নির্বাচন কমিশন (ইসি) হালনাগাদ ভোটার তালিকার (ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসূচি ২০১৯) খসড়া প্রকাশ করেছে। সোমবার (২০ জানুয়ারি) এই ভোটার তালিকা প্রকাশ করে ইসি। তবে এই খসড়া ভোটার তালিকায় অনেকের ভুল তথ্য আসতে পারে। সেক্ষেত্রে করণীয় কী হবে তা বিস্তারিত জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

ভোটার তালিকার সময়সূচি অনুযায়ী, দাবি, আপত্তি ও সংশোধনের জন্য দরখাস্ত দাখিলের শেষ দিন ৫ ফেব্রুয়ারি; সংশোধনকারী কর্তৃপক্ষ দাবি, আপত্তি ও সংশোধনের জন্য দাখিল করা দরখাস্ত নিষ্পত্তি করবে ১২ ফেব্রুয়ারি এবং দাবি আপত্তি ও সংশোধনের জন্য দাখিল করা দরখাস্তের ওপর গৃহীত সিদ্ধান্ত সন্নিবেশনের শেষদিন ২০ ফেব্রুয়ারি। হালনাগাদ করা চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশের সময় খুব শিগগিরই জানাবে কমিশন।

খসড়া হালনাগাদ ভোটার তালিকা প্রকাশের পর তা উন্মুক্ত প্রদর্শন করা হচ্ছে। উন্মুক্ত প্রদর্শনীর জায়গাগুলো হলো সংশ্লিষ্ট সিনিয়র জেলা অথবা জেলা নির্বাচন অফিস, সংশ্লিষ্ট উপজেলা অথবা থানা নির্বাচন অফিসার ও রেজিস্ট্রেশন অফিসারের কার্যালয়, ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা, ওয়ার্ড অফিস, ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড, রেজিস্ট্রেশন কেন্দ্র অথবা জনগুরুত্বপূর্ণ দর্শনীয় স্থান এবং রিভাজিং অথরিটির কার্যালয়।

যারা সংশোধনকারী কর্তৃপক্ষ

আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা/ অতিরিক্ত আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা/জ্যেষ্ঠ জেলা/জেলা নির্বাচন অফিসার/উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের এবং সিটি কর্পোরেশন ও ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড এলাকার জন্য আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা/সিনিয়র জেলা অফিসার/জেলা নির্বাচন অফিসার/অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক)/ক্যান্টনমেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার এবং কতিপয় বিশেষ এলাকার জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক)/অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে (শিক্ষা) সংশোধনী কর্তৃপক্ষ নিয়োগ করা হয়েছে।

দাবি, আপত্তি ও সংশোধনী সংক্রান্ত দরখাস্ত দাখিল ও গ্রহণের পদ্ধতি

বিধি অনুযায়ী, হালনাগাদ করা খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশের পরবর্তী ১৫ দিনের মধ্যে ভোটার তালিকার ওপর দাবি, আপত্তি ও সংশোধনের জন্য দরখাস্ত দাখিল করতে হবে। আপত্তি ও সংশোধনীর দরখাস্তগুলো নির্ধারিত ফরমে সংশোধনকারী কর্তৃপক্ষকে সম্বোধন করে দরখাস্ত দাখিল করতে হবে। দরখাস্তগুলো সংশোধনকারী কর্তৃপক্ষ বা রেজিস্ট্রেশন অফিস বা জেলা নির্বাচন অফিসারের নিকট নির্ধারিত সময়ের মধ্যে অথবা ডাকযোগে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পৌঁছাতে হবে।

দাবি আপত্তি ও সংশোধনী সংক্রান্ত দরখাস্ত নিষ্পত্তি

বিধি অনুসারে, সংশোধনকারী কর্তৃপক্ষকে দাবি, আপত্তি ও সংশোধনী সম্বলিত আবেদনপত্র রেজিস্ট্রারে রেজিস্ট্রিভুক্ত করতে হবে এবং খসড়া ভোটার তালিকার ওপর প্রাপ্ত দাবি, আপত্তি ও সংশোধন সংক্রান্ত আবেদনপত্র উল্লিখিত সময়সূচি অনুযায়ী নিষ্পত্তি করতে হবে। সংশোধনকারী কর্তৃপক্ষকে স্ব-স্ব অধিক্ষেত্রে গিয়ে এই দায়িত্ব পালন করতে হবে। নারী ভোটার অন্তর্ভুক্তি অথবা কর্তনের ক্ষেত্রে যথেষ্ট সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে। এছাড়া বিশেষ এলাকার ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গা অন্তর্ভুক্তি রোধকল্পে অধিকতর সক্রিয়ভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

হালনাগাদ করা খসড়া ভোটার তালিকা রক্ষণাবেক্ষণ ও সংরক্ষণ

বিভিন্ন অফিস স্থাপনা ও স্থানে প্রকাশিত হালনাগাদ করা খসড়া ভোটার তালিকার কপি সুষ্ঠুভাবে রক্ষণাবেক্ষণ নিশ্চিত করতে হবে।

হালনাগাদ করা চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রস্তুত ও প্রকাশ

সংশোধনকারী কর্তৃপক্ষকে প্রাপ্ত দাবি, আপত্তি ও সংশোধনের দরখাস্তের ওপর গৃহীত সিদ্ধান্তগুলো উল্লেখিত তারিখের মধ্যে হালনাগাদকৃত ভোটার তালিকায় সন্নিবেশ এবং যথাসময়ে চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশের ব্যবস্থা করতে হবে। এই পরিপ্রেক্ষিতে হালনাগাদ করার চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে মর্মে রেজিস্ট্রেশন অফিসারকে নিজ পূর্ণ নাম স্বাক্ষর প্রদান এবং উক্ত প্রত্যয়নপত্রের কপি তার কার্যালয়ে সংরক্ষণ করতে হবে।

পিডি/এসআর/জেআইএম