শিল্প-কারখানায় গ্যাস সরবরাহ অগ্রাধিকার পাচ্ছে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:২৬ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২০

বাসা-বাড়িতে নয়, শিল্প-কারখানায় প্রাকৃতিক গ্যাসের সরবরাহের বিষয়টি অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

তিনি বলেন, মহামূল্যবান গ্যাস সকলেই চান বাসার চুলায় নিতে। কিন্তু আমরা এ বিষয় থেকে বিরতি নিতে চাই।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে আনীত সিদ্ধান্ত প্রস্তাবের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনে সিদ্ধান্ত প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন সরকারদলীয় সংসদ সদস্য নরুন্নবী চৌধুরী শাওন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা কোন খাতে গ্যাস দিব? যদি গ্যাস দিয়ে বিদ্যুৎ তৈরি করি, তাহলে সেখানে যে এনার্জি তৈরি হয় সেটার এফিশিয়েন্সি ৬৫ শতাংশ। বাসার চুলায় গ্যাস ব্যবহার করলে তার এফিশিয়েন্সি ৫ শতাংশ। দুটি চুলায় এক মাসে যে পরিমাণ গ্যাস ব্যবহার হয়, সেই গ্যাস দিয়ে যদি গার্মেন্টসের ব্রয়লার চালানো হয়, তাহলে একশ লোকের কর্মসংস্থান হয়। কাজেই গুরুত্বটা কোথায়? বুঝতে হবে। অতি মূল্যবান প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন করতে খরচ হয় ৯ টাকা আর সেই গ্যাস বিক্রি করছি গড়ে ৭ টাকায়।

নসরুল হামিদ বলেন, গ্যাসের চাহিদা মেটাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার প্রায় ছয় হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিচ্ছে। চাহিদার ক্ষেত্রে স্বস্তির লেবেল তৈরির জন্য এ ভর্তুকি দেয়া হচ্ছে। যে গ্যাস আমদানি করছি সেখানেও প্রায় ১০-১২ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেয়া হচ্ছে। যে পরিমাণ গ্যাস আমাদের শিল্পে ব্যবহার করা হয় সেখানেও যাতে স্বস্তি তৈরি হয়।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, গ্যাসের ব্যবহার বিষয়ে ২০১৮ সালের ৩ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, ভোলায় বিদ্যুৎকেন্দ্র ব্যতীত অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানে গ্যাস সরবরাহের প্রয়োজন নেই। শিল্প এলাকায় গ্যাস সরবরাহ অগ্রাধিকার পাবে।

এইচএস/এএইচ/এমকেএইচ