আগামী নির্বাচন পর্যন্ত বিরোধী দলকে অপেক্ষা করতে হবে

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৫২ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র আছে কিন্তু বলা হচ্ছে নির্বাচন ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে, গণতন্ত্র ধ্বংসের পথে। ধ্বংসের পথে হলেও আগামী নির্বাচন পর্যন্ত বিরোধী দলকে অপেক্ষা করতে হবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর কাকরাইলের আইডিইবি ভবনে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইইডিবি), বাংলাদেশ ক্লাইমেট চেঞ্জ জার্নালিস্ট ফোরাম (বিসিজিএফ) এবং কৃষি তথ্য সার্ভিসের আয়োজনে ‘জলবায়ু পরিবর্তন : খাদ্য নিরাপত্তা ও নিরাপদ খাদ্যের নিশ্চয়তায় করণীয়’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, বিরোধী দল যদি অপেক্ষা না করে, দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়, মানুষের জীবনে যদি শান্তি না থাকে, স্থিতিশীলতা না থাকে, তাহলে কিন্তু উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে না। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য দেশে স্থিতিশীল পরিস্থিতি দরকার। আরেকটা নির্বাচন পর্যন্ত বিরোধী দলকে অপেক্ষা করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, এ দেশের মালিক হলো জনগণ। তারাই সিদ্ধান্ত নেবে। আমরা যারা সরকারে আছি তারা চাই সন্ত্রাস ও নাশকতার মাধ্যমে যারা রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা আনতে চায় তাদেরকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে। সরকারের মূল লক্ষ্য ও দায়িত্ব হলো মানুষের জীবনে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, যাতে আমাদের ছেলেমেয়েরা অর্থাৎ ভবিষ্যৎ প্রজন্ম মেধাবী ও সৃজনশীল হয়।

মন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন বিশ্ব সমস্যা। সারা পৃথিবীজুড়ে এ সমস্যা। বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির জন্য আমরা নিজেরা তেমন দায়ী নই।

আইডিইবির সভাপতি এ কে এম এ হামিদের সভাপতিত্বে ও বিসিজেএফের সভাপতি কাওসার রহমানের সঞ্চালনায় সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিসিজিএফ সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন হাজি দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. সাজ্জাত হোসেন সরকার।

এমইউ/এমএসএইচ/এমকেএইচ