ঈদ জামাতে করোনা থেকে মুক্তির প্রার্থনা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ১১:৩৬ এএম, ২৫ মে ২০২০

সম্পূর্ণ ভিন্ন পরিস্থিতিতে এক মাসের সিয়াম সাধনার পর আজ ঈদুল ফিতর পালন করেছে বন্দর নগরী চট্টগ্রামের বাসিন্দারা। নগরীর জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদে ঈদুল ফিতরের প্রধান ও প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৮টায়। সব ধরনের সুরক্ষাবিিধি মেনেই ঈদ জামাতে অংশ নেন মুসুল্লিরা। নামাজ শেষে মুনাজাতে ইমাম-মুসল্লি সবার প্রার্থনা ছিল ‘করোনা থেকে মুক্তির’।

নামাজে ইমামতি করেন জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদের খতিব সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দিন। জামাত শেষে খুতবা পেশ করা হয়। এরপর অনুষ্ঠিত হয় দোয়া ও মোনাজাত। মোনাজাতে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করা হয়েছে। পাশাপাশি সম্প্রতি বৈশ্বিক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও নিহতদের জন্য দোয়া করা হয়েছে। এছাড়া মোনাজাতে সব উম্মতে মোহাম্মদির গুনাহ মাফ চাওয়া হয়েছে। সব মৃত ব্যক্তির কবরের আজাব মাফ চাওয়া হয়েছে। যেকোনো বিপদ থেকে দেশকে হেফাজতের জন্য প্রার্থনা করা হয়েছে।

পাঁচতলা মসজিদটিতে বেলা ১১ টা পর্যন্ত তিন জামাতে সাড়ে ৭ হাজার মুসল্লির নামাজের ব্যবস্থা করা হলেও এই দুর্যোগেও মুসল্লিদের ছোটখাটো ঢল নেমেছিল। প্রতি জামাতে আড়াই হাজার করে মুসল্লির নামাজ আদায় করার কথা থাকলেও বাইরেও আরও দুই থেকে আড়াই হাজার মুসল্লি মসজিদের বিভিন্নস্থানে বা সামনে অবস্থান নিয়ে নামাজ আদায় করেন।

ctgeid-(2).jpg

স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোলাকুলি ও হাত মেলাতে মানা থাকায় সেগুলো মেনেই ঈদের নামাজ আদায় করেছেন মুসল্লিরা। নামাজ শেষে কাউকেই দেখা যায়নি হাত মেলানো বা কোলাকুলি করতে। ফলে অনেকই একটু কষ্ট মনে নিয়েই ফিরেছেন ঘরে।

প্রতি বছর চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন সংস্থার আয়োজনে ঈদের জামাতের আয়োজন করা হলেও এবার সংস্থাগুলোর পক্ষ থেকে কোনো ঈদ জামাতের আয়োজন হয়নি। তবে প্রত্যেক এলাকায় মসজিদ কমিটির তত্ত্বাবধানে মসজিদগুলোতে প্রায় দেড় হাজার ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে চট্টগ্রামবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, শিক্ষা উপ-মন্ত্রী ব্যারিস্টার মহীবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল করিম চৌধুরী, নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর প্রমুখ।

আবু আজাদ/এনএফ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]