সালাম ঢালীর জেল খাটা জাহালম ঘটনার পুনরাবৃত্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩২ পিএম, ০৭ জুলাই ২০২০

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম বলেছেন, ‘নিরপরাধ হয়েও সালাম ঢালী জেল খেটেছেন যা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। এই ঘটনা জাহালম ঘটনার পুনরাবৃত্তি। একের পর এক এ ধরনের ঘটনা ঘটছে যা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

বিনা অপরাধে চার মাস জেল খাটার পর জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সহায়তায় মুক্তি পেয়েছেন খুলনার সালাম ঢালী। আদালতের নির্দেশের পর সোমবার বিকেলে বাগেরহাট কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশন জানিয়েছে, ‘আসামির নাম, বাবার নাম এবং ঠিকানার একাংশের মিল থাকায় বিনা অপরাধে জেলে থাকা সালাম ঢালীকে কমিশনের প্যানেল আইনজীবীর মাধ্যমে আইনি সহায়তা দিয়ে মুক্তির ব্যবস্থা করা হয়।’

salam-dhali-01.jpg

গণমাধ্যমে ‘আসামি না হয়েও জেল খাটছেন খুলনার সালাম ঢালী’ শীর্ষক সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর মানবাধিকার কমিশন স্বপ্রণোদিত আমলে নিয়ে বাগেরহাটের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তার মুক্তির জন্য আবেদন করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল আদালত সালাম ঢালীকে মুক্তির আদেশ দেন।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা ফারহানা সাঈদ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কমিশনের চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম বলেন, ‘নিরপরাধ হয়েও সালাম ঢালী জেল খেটেছেন যা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। এই ঘটনা জাহালম ঘটনার পুনিরাবৃত্তি। একের পর এক এ ধরনের ঘটনা ঘটছে যা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। সঠিক যাচাই-বাছাই না করে নিরপরাধ ব্যক্তিকে আটক রোধে যথোপযুক্ত কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা আবশ্যক বলে মনে করে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন।

এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে দায়ীদের শাস্তি নিশ্চিত করা এবং সংশ্লিষ্ট সকল দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সতর্ক করার জন্য সরকারের বরাবর পত্র প্রেরণ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

জেইউ/এমএআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]