‘বিগ ডাটা এবং বিদ্যুৎ ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:০৪ পিএম, ০৭ জুলাই ২০২০

বাংলাদেশ জ্বালানি ও বিদ্যুৎ গবেষণা কাউন্সিলের উদ্যোগে অনলাইনে ‘বিগ ডাটা এবং বিদ্যুৎ ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক সেমিনার মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, পরিসংখ্যান ব্যুরোর সাথে সমন্বয় করে বিদ্যুৎসংশ্লিষ্ট প্রয়োজনীয় তথ্য ‘বিগ ডাটা’ হতে নিলে সুষম পরিকল্পনা ও নীতিমালা গ্রহণ করতে সুবিধা হবে। প্রদত্ত ছয়টি ক্লাস্টার আরও বিশ্লেষণ করা যেতে পারে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, বিগ ডাটা এবং বিদ্যুৎ ব্যবস্থাপনা নিয়ে স্মার্ট প্রি-পেইড মিটার, স্ক্যাডা বিদ্যুৎ ব্যবহারের গতিধারা বা প্যাটার্ন নির্ণয় করতে সহায়তা করবে। বিতরণ কোম্পানিগুলোকে ডাটা সংগ্রহ ও প্রয়োগের বিষয়ে আন্তরিক হতে হবে। ৯৭ ভাগ মানুষ বিদ্যুতায়নের আওতায় এসেছে। সুতরাং, বিদ্যুৎ ব্যবহারশৈলী বিশ্লেষণ করে এলাকা, লোকজন বা গ্রাহক সম্পর্কে সিদ্ধান্তে আসা যাবে। এর ব্যবসায়িক গুরুত্ব অপরিসিম। ডিপিডিসি’র প্রি-পেমেন্ট ডাটা ও স্যাটেলাইট ডাটা বিশ্লেষণকে স্বাগত জানিয়ে তিনি আরও বলেন, বিগ ডাটা বিশ্লেষণ সিদ্ধান্ত গ্রহণের অন্যতম অধুনিক কৌশল।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মইনুল যাবের। প্রবন্ধের মূল নিবন্ধন ছিল অপ্রথাগত ডাটা ব্যবহার করে টেলিফোনযোগে ও আইসিটি মাধ্যমে জ্বালানি ও টেকসই শহর নির্মাণ এবং মানব গতিশীলতা ও আর্থসামাজিক মডেলিং তৈরি করা। এখানে তিনি গ্রাহকদের প্রাক-অর্থ প্রদানের আচরণ নিয়েও বিশ্লেষণ করেন।

বাংলাদেশ জ্বালানি ও বিদ্যুৎ গবেষণা কাউন্সিলের চেয়ারম্যান সুবীর কিশোর চৌধুরীর সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল এই সেমিনারে অন্যান্যের মাঝে বিদ্যুৎ সচিব ড. সুলতান আহমেদ ও পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এমইউ/এমএআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]