বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: সংসদীয় কমিটিতে তদন্ত প্রতিবেদন তলব

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩০ পিএম, ১৬ জুলাই ২০২০

সম্প্রতি বুড়িগঙ্গায় ‘এমভি ময়ূর-২’ লঞ্চের ধাক্কায় যাত্রীবাহী লঞ্চ ‘এমএল মর্নিং বার্ড’ ডুবে যাওয়ার ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন তলব করেছে সংসদীয় কমিটি। একই সঙ্গে এই দুর্ঘটনাসহ অতীতের সকল নৌ দুর্ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির সুপারিশ চাওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এসব প্রতিবেদন চাওয়া হয়।

কমিটির সভাপতি রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য শাজাহান খান, মো. মজাহারুল হক প্রধান, রনজিত কুমার রায়, মো. আছলাম হোসেন সওদাগর ও এস এম শাহজাদা বৈঠকে অংশ নেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য সাবেক নৌমন্ত্রী শাজাহান খান সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওই লঞ্চ দুঘর্টনা খুবই মর্মান্তিক। আসলে এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটা উচিত নয়। এজন্য আমরা ওই দুর্ঘটনার পর গঠিত তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন চেয়েছি। এছাড়া আগে ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনার তদন্ত কমিটি যেসব সুপারিশ করেছিল সেটাও চাওয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের দুর্ঘটনা এড়ানো যায়, সেজন্য সবগুলো পর্যালোচনা করতে চায় সংসদীয় কমিটি।’

এদিকে বৈঠকে মন্ত্রণালয় জানায়, নৌপথে যাত্রী হয়রানি এবং অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে ই-টিকিটিং কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

বৈঠকে বিআইডব্লিউটিএ এবং বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) উন্নয়ন কার্যক্রম, ড্রেজিং পরিস্থিতি এবং বর্তমানে দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে গৃহীত পদক্ষেপগুলো উপস্থাপন করা হয় বলে সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

বৈঠকে ২০১৯-২০ অর্থবছরে চলমান প্রকল্পগুলোর কাজ দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট সংস্থা প্রধানদের নির্দেশনা দেয়া হয়। এছাড়া বিআইডব্লিউটিএ এবং বিআইডব্লিউটিসির শূন্য পদগুলো দ্রুত পূরণের বিষয়ে আলোচনা হয়।

এছাড়া বৈঠকে বর্তমানে অধিদফদরগুলোতে জনবলের ঘাটতি কতো, কীভাবে তা পূরণ করা যায়, সে বিষয়ে আগামী বৈঠকে একটি প্রতিবেদন দেয়ার সুপারিশ করা হয়।

এইচএস/এমএসএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]