দুপুরের খাবারে কোরবানির মাংস পাবেন বন্দীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:০০ পিএম, ০১ আগস্ট ২০২০

মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-আজহা আজ। করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে সীমিতভাবে হলেও ঈদের আনন্দ উপভোগ করবে কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের বন্দীরা।

কারাবন্দীদের দুপুরের খাবারের মেন্যুতে থাকছে কোরবানি করা গরুর মাংস। ইতিমধ্যে মাংসের জন্য সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন কসাইখানাকে জানানো হয়েছে। তারা কারাগারে মাংস পৌঁছে দেবে। আর দুপুরের খাবারেই সেই মাংস খেতে পারবেন বন্দীরা।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুবুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, দুপুরের খাবারে কারাবন্দীরা কোরবানি করা গরুর মাংস পাবেন। যারা হিন্দু ধর্মাবলম্বী অথবা গরু খেতে পারেন না তাদের জন্য রয়েছে মুরগির মাংসের ব্যবস্থা।

প্রতি বছরের মতো ঈদের বিশেষ দিনটিতে বিশেষ খাবার পেলেও ঈদুল ফিতরের মতো এবারও একসাথে জামাতে নামাজ পড়তে পারেননি বন্দীরা। করোনার প্রাদুর্ভাব এড়াতে বন্দীরা কারা মসজিদের বিকল্প হিসেবে নিজ নিজ ওয়ার্ডে নামাজ পড়েছেন।

কেন্দ্রীয় কারাগার সূত্র জানায়, সকাল ৭টায় মুড়ি আর পায়েস দিয়ে ঈদ উদযাপন শুরু করেছেন কারাগারের বন্দীরা। ঈদের দিন দুপুরে বন্দীরা গরুর মাংসের সাথে সাদা ভাত, আলুর দম পাবেন। আর রাতের বিশেষ আয়োজনে তারা পাবেন পোলাও, ডিম, মিষ্টান্ন এবং পান-সুপারি।

এআর/এনএফ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]