টিকাটুলিতে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক পণ্য জব্দ : গ্রেফতার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:২০ পিএম, ১৭ আগস্ট ২০২০

রাজধানীর ওয়ারী থানাধীন টিকাটুলি এলাকায় আবাসিক ভবনে অভিযান পরিচালনা করে বিপুল পরিমাণ কেমিক্যাল, উচ্চ ক্ষমতার দাহ্য পদার্থ এবং বিস্ফোরক তৈরিতে ব্যবহৃত বিভিন্ন বিপজ্জনক পদার্থ জব্দ করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের সহযোগিতায় র‌্যাব-৩ এর একটি দল ওয়ারী থানাধীন হাটখোলা রোড, আবাসিক ভবনের (২৭ রাসেল সেন্টার) নিচ তলায় অভিযান পরিচালনা করে।

অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাব-৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু।

Arrest-2

র‌্যাব-৩ সূত্র জানায়, হাটখোলা রোড, আবাসিক ভবনের (২৭ রাসেল সেন্টার) নিচ তলায় ইয়াছিন সাইন্টিফিক স্টোর এবং যমুনা সাইন্টিফিক স্টোরে লাইসেন্সবিহীন বিপুল পরিমাণ কেমিক্যাল, উচ্চক্ষমতার দাহ্য পদ পদার্থ এবং বিস্ফোরক তৈরিতে ব্যবহৃত টুলুইন নামক বিশেষ পদার্থ গুদামজাত করেছে। ওই সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৩ এর একটি দল সোমবার (১৭ আগস্ট) দুপুর ১২টা থেকে রাজধানীর ওয়ারী থানাধীন টিকাটুলি এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে, অবৈধভাবে মজুতকৃত বিপুল পরিমাণ ইথানল, আইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল, সালফিউরিক এসিড, নাইট্রিক এসিড, হাইড্রোফ্লোরিক এসিড, ফরসিক এসিড, হাইড্রো ক্লোরিক এসিড, ড্রাই মিথাইল সালদো, মিথানল এবং টুলুইন জব্দ করে।

Arrest-3

র‌্যাবের অভিযানে জব্দ আলামতসহ ইয়াছিন সাইন্টিফিক স্টোরের মালিক আব্দুস ছালাম (৬২), ম্যানেজার নূর হোসেন (৬৫) এবং কর্মচারী শাহীনকে (৩২) গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসুর উপস্থিতিতে বিসিআইসি এবং নারকটিক্সের কর্মকর্তাদের সামনে জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় যে, গ্রেফতাররা দীর্ঘদিন ধরে লাইসেন্সবিহীনভাবে এসব অবৈধ কেমিক্যাল, দাহ্য পদার্থ এবং বিস্ফোরক তৈরিতে ব্যবহৃত বিভিন্ন বিপজ্জনক পদার্থ গুদামজাত করে আসছিলেন।

Arrest-3

র‌্যাব-৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু বলেন, সব পদার্থ অত্যন্ত বিপজ্জনক, যা যেকোনো মুহূর্তে আবাসিক এলাকায় যেকোনো দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে। এতে জানমালের ব্যাপক ক্ষতিসাধন করতে পারে। গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলাপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

জেইউ/এএইচ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]