সহজেই দলের নিবন্ধন বাতিলের ক্ষমতা পাচ্ছে ইসি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩০ এএম, ২১ আগস্ট ২০২০

প্রস্তাবিত নতুন আইন কার্যকর করে সহজেই রাজনৈতিক দলগুলোর নিবন্ধন বাতিল করতে পারবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বর্তমান আইনে নির্বাচন কমিশনের নির্ধারিত তিনটি শর্তের মধ্যে একটি পূরণ করতে পারলেই যে কোনও রাজনৈতিক দল নিবন্ধনযোগ্য বিবেচিত হয়। কিন্তু নতুন আইনে দলগুলোকে তিনটি শর্তের মধ্যে দুটি পূরণ করতে হবে।

আগামী ২৬ আগস্ট কমিশন সভায় রাজনৈতিক দল নিবন্ধন আইন-২০২০-এর খসড়া অনুমোদনের করতে সভা করবে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি।

ইসির রাজনৈতিক দল নিবন্ধন শাখার উপসচিব আবদুল হালিম খান জানান, রাজনৈতিক দলসমূহের নিবন্ধন আইন-২০২০ নামে আইনের খসড়া প্রস্তুত করেছে নির্বাচন কমিশন। এক যুগ আগে একটি নিবন্ধন শর্ত পূরণ করেই দল নিবন্ধন পেয়েছে। আগামীতে দুটি নিবন্ধন শর্ত পূরণ করতে হবে আগ্রহী দলকে।

ইসির নতুন খসড়া আইনে নিবন্ধন শর্তাবলিতে রাখা হচ্ছে, কেন্দ্রীয় কমিটিসহ সব পর্যায়ের কমিটি ন্যূনতম শতকরা ৩৩ ভাগ সদস্য পদ নারী সদস্যদের জন্য সংরক্ষণের লক্ষ্যমাত্রা থাকতে হবে। কমিশনে প্রদেয় বার্ষিক প্রতিবেদনে এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের বিবরণ অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। এ ছাড়া ইসিতে নিবন্ধন আবেদন করার তারিখ হতে পূর্ববর্তী দুটি সংসদ নির্বাচনে দলীয় নির্বাচনী প্রতীক নিয়ে কমপক্ষে একটি আসনে জিততে হবে। অথবা সংসদ নির্বাচনের যে কোনো একটিতে দরখাস্তকারী দল নির্বাচনে প্রদত্ত মোট ভোটের শতকরা ৫ ভাগ ভোট পেতে হবে। অথবা দলের কেন্দ্রীয় কমিটি, সক্রিয় কেন্দ্রীয় দফতর, অন্যূন এক-তৃতীয়াংশ প্রশাসনিক জেলায় কার্যকর জেলা দফতর, অন্যূন ১০০ উপজেলা বা মেট্রোপলিটন থানার প্রতিটিতে কার্যকর দফতরসহ ন্যূনতম দুইশ ভোটার সদস্য হিসেবে দলের তালিকাভুক্ত থাকতে হবে।

জানা যায়, খসড়া আইনের ৪(৩) ধারায় শর্ত প্রতিপালন না করার কারণে রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন বাতিলের সুযোগ পাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। এতে বলা হয়েছে নির্বাচন কমিশন সচিবালয় বিধি দ্বারা নির্ধারিত পদ্ধতির মাধ্যমে রাজনৈতিক দলগুলোর শর্তাদি পূরণ সম্পর্কে তদন্ত করে প্রতিবছর ডিসেম্বর মাসের মধ্যে কমিশনের কাছে প্রতিবেদন উপস্থাপন করবে। কমিশনের বিবেচনায় কোনও রাজনৈতিক দল শর্তাদি পূরণে ব্যর্থ হলে ধারা-১১ অনুসারে সেই রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন বাতিল করা হবে।

এইচএস/এএইচ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]