ভাটারায় স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা

ঢামেক প্রতিবেদক
ঢামেক প্রতিবেদক ঢামেক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:২৬ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

রাজধানীর ভাটারা থানাধীন বালুরমাঠ এলাকায় মনিরা আক্তার (২৭) নামের এক গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর তার স্বামী গলাকেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাত ১টার দিকে ভাটারা ঢালীবাড়ি বালুর মাঠ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাত আড়াইটার দিকে পুলিশ এসে ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বুধবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহতের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ধোবাউড়া উপজেলার বালিগাঁও গ্রামে। বর্তমানে ভাটারার ঢালীবাড়ী বালুর মাঠ এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন।

ভাটারা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাসান পারভেজ জানান, মঙ্গলবার রাতে ঢালীবাড়ি এলাকায় স্ত্রীকে হত্যার পর ধারালো অস্ত্র দিয়ে নিজের গলাকেটে এক ব্যক্তি আত্মহত্যার চেষ্টা করছেন, এমন সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। সেখানে মনিরাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পাই। পরে মনিরার স্বামী দিলীপকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তিনি আরও জানান, ওই দম্পতির প্রতিবেশীর মাধ্যমে জানা গেছে, দিলীপ একজন অটোরিকশাচালক। তাদের ১০ মাসের একটি সন্তান আছে। প্রায়ই পারিবারিক বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হতো। গতরাতেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে মনিরাকে ভারী কিছু দিয়ে মাথা ও কপালসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করেন দিলীপ। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান মনিরা। এর পরপরই দিলীপ ধারালো অস্ত্র দিয়ে নিজের গলাকেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান এসআই হাসান পারভেজ।

এমএসএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]