অক্টোবর থেকে সিলেট-লন্ডন রুটে ফ্লাইট চালুর বিষয়ে ডিএফটিকে অনুরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৮ এএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সিলেট-লন্ডন-সিলেট রুটে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা চূড়ান্তকরণের বিষয়ে ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) ও যুক্তরাজ্যের পরিবহন বিভাগের (ডিএফটি) মধ্যে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বাংলাদেশের পক্ষে বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মাে. মফিদুর রহমান ও যুক্তরাজ্যের পক্ষে সংস্থার পরিচালক কাশিফ চৌধুরী নেতৃত্ব দেন। সভায় এভিয়েশন সিকিউরিটি বিষয়ে বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলােচনা হয়।

বিশেষ করে সিলেট-লন্ডন-সিলেট রুটে বিমানের সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনার বিষয়ে এভিয়েশন নিরাপত্তা সম্পর্কিত দুই সংস্থার সুপারিশগুলো বাস্তবায়ন ও আগামী অক্টোবর মাস থেকে বিমান চলাচল শুরুর যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্নের কথা উল্লেখ করে বেবিচক চেয়ারম্যান দ্রুততার সঙ্গে অনুমােদনের পর্বটি শেষ করার অনুরােধ করেন।

তিনি দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ও বিমানবন্দরের মানোন্নয়নে যুক্তরাজ্যের পরিবহন বিভাগের ভূয়সী প্রসংশা করেন ও আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

আলােচনায় করোনা মহামারির কারণে যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশের এভিয়েশন সেবারে চলমান প্রভাব, পুনরায় পূর্বের ন্যায় এভিয়েশন খাতকে পুনরুজ্জীবিত করা, সিলেট-লন্ডন-সিলেট রুটে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা এবং পারস্পারিক সহযােগিতা ও পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে বিশদ আলােচনা হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক এভিয়েশন সেক্টরে গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ বিশেষ করে বিমানবন্দর উন্নয়ন এবং প্রণােদনার বিষয়ে বেবিচক চেয়ারম্যান সভায় আলােকপাত করেন। অপরদিকে ডিএফটি পরিচালক পারস্পরিক স্বার্থবজায় রেখে বাংলাদেশের প্রতি সর্বাত্মক সহায়তা প্রদানে তার দফতরের আন্তরিক প্রচেষ্টার উল্লেখ করেন।

সভা শেষে উভয়পক্ষ কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ বাস্তবায়নের ব্যাপারে একমত পােষণ করেন এবং দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশের এভিয়েশন সিকিউরিটি ব্যবস্থাকে আরও উন্নত করা যাবে এ আশাবাদ ব্যক্ত করে সভার সমাপ্তি ঘােষণা করেন।

সভায় সদস্য (পরিচালনা ও পরিকল্পনা), সদস্য (নিরাপত্তা), যুক্তরাজ্যের বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রতিনিধি, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি, বাংলাদেশ বিমানের পরিচালক (পরিকল্পনা) এবং যুক্তরাজ্যের পরিবহন বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।

এআর/বিএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]