দুর্গাপূজা : ৩ দিন সরকারি ছুটির দাবিতে কাল সারাদেশে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৮ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজার ক্ষণগণনা শুরু হয়েছে। আজ শুভ মহালয়া। চণ্ডীপাঠের মাধ্যমে মর্ত্যলোকে আমন্ত্রণ জানানো হবে দেবী দুর্গাকে। আগামী ২২ অক্টোবর থেকে শুরু হবে পাঁচ দিনব্যাপী দুর্গাপূজা।

দুর্গাপূজা উপলক্ষে একদিন সরকারি ছুটি থাকে। পাঁচ দিনের দুর্গাপূজায় অন্তত তিন দিন সরকারি ছুটি করতে দীর্ঘদিন ধরে দাবি করে আসছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সংগঠনগুলো। তাদের দাবি বাস্তবায়ন না হওয়ায় দুর্গাপূজার অষ্টমী, নবমী ও দশমী-এই তিন দিন সরকারি ছুটির দাবিতে শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সারাদেশে মানববন্ধন করবে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট নামে একটি সংগঠন।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাগো নিউজকে এ তথ্য জানান হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক।

গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক বলেন, আগামীকাল সকাল ১০টায় একযোগে দেশের ৬৪ জেলায় মানববন্ধন করা হবে। তিনি বলেন, তিন দিন সরকারি ছুটির দাবি সব হিন্দু ধর্মাবলম্বীর। মানববন্ধনের মাধ্যমে সরকারের কাছে আবেদন জানাতে চাই, পূজার ছুটি তিন দিন করা হোক। এজন্য সব জেলা থেকে একসঙ্গে মানববন্ধন করা হচ্ছে।

হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব বলেন, ‘আমাদের দুর্গাপূজা মোট পাঁচ দিন। তার মধ্যে তিন দিন ছুটি দাবি করেছি। সংবিধানে বলা আছে সব ধর্মের সমঅধিকার নিশ্চিত করার কথা। প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম; তবে অন্য ধর্মাবলম্বীরাও সমঅধিকার ও সমমর্যাদা লাভ করবে। সেখানে সংখ্যাগরিষ্ঠরা যদি দুই ঈদের ছয় দিন ছুটি পায়, সেখানে আমরা তার অর্ধেক দাবি করছি।’

বিষয়টি ব্যাখ্যা করে সংগঠনটির মহাসচিব বলেন, ‘দুর্গাপূজা ধর্মীয়। এ পূজায় পিতামাতার কাছ থেকে সন্তানরা আশীর্বাদ লাভ করে। পিতামাতাও আশা করে যে, তাদের সন্তান বাড়িতে আসুক, প্রণাম করুক। গ্রামবাসীর সঙ্গে বন্ধন সুদৃঢ় করার অনুষ্ঠান এটা। এ দিন গ্রামের প্রত্যেক মুরব্বিকে প্রণাম করে তাদের কাছ থেকে আশীর্বাদ নেয়া হয়।’

‘অনেক সময় স্বামী এক জায়গায়, স্বী আরেক জায়গায় চাকরি করেন। অন্তত পূজায় যেন তারা পরিবারের সবাইকে নিয়ে উৎসব করতে পারেন। এখানে আছে একদিন ছুটি। একদিনের ছুটিতে ঢাকা থেকে গ্রামে গিয়ে একদিনে অনুষ্ঠান করে ফিরে আসা সম্ভব নয়। এজন্য আমরা বলেছি, আমাদের পূজা পাঁচ দিন, আমাদের যেন অন্তত তিন দিন সরকারি ছুটি দেয়া হয়। অষ্টমী, নবমী ও দশমী-এই তিন দিন আমরা ছুটি চাই।’

বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ফোরামের মহাসচিব মানিক চন্দ্র সরকার জানান, তারা দুর্গাপূজার অষ্টমী, নবমী ও দশমী-এই তিন দিন সরকারি ছুটি চান।

পিডি/এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]