‘এমপি মোস্তাফিজ বহিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৮:১৯ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাঁশখালীর সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমানের সদস্য পদ বাতিল এবং আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার না করা পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগরের মুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব চত্বরে ওই দাবিতে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি উদ্বোধনকালে বক্তারা এ ঘোষণা দেন।

এ সময় মুক্তিযোদ্ধারা বলেন, মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমানের মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাবিরোধী কর্মকাণ্ড এবং ২৪ আগস্ট চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্বরে মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের ওপর হামলায় সারাদেশের জনগণ আজ ক্ষুব্ধ। জনগণের দাবি, অবিলম্বে এমপি মোস্তাফিজুর রহমানের সাংসদ পদ বাতিল ও আওয়ামী লীগ থেকে তাকে বহিষ্কার করা হোক। জনগণের এ দাবি সরকার ও আওয়ামী লীগ কেন আমলে নিচ্ছে না, এজন্য সারাদেশের জনগণ হতবাক। মুক্তিযোদ্ধারা অবিলম্বে এ ব্যাপারে উদ্যোগ নিতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে আহ্বান জানান।

Ctg-1

মুক্তিযোদ্ধারা বলেন, সংসদ সদস্যের নির্দেশে স্থানীয় প্রশাসন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যাকাণ্ডের প্রথম প্রতিবাদকারী মৌলভী সৈয়দ আহমদের বড় ভাই মুক্তিযোদ্ধা আলী আশরাফের মৃত্যুর পর রাষ্ট্রীয় সম্মাননা জানায়নি। এর প্রতিবাদে ২৪ আগস্ট চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলার প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধনে হামলা চালান সংসদ সদস্য মোস্তাফিজের সমর্থকরা।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড চট্টগ্রাম মহানগরের আহ্বায়ক শাহেদ মুরাদ সাকুর সভাপতিত্বে ও জেলার সদস্য সচিব কামরুল হুদা পাভেলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম, মুক্তিযুদ্ধ ৭১ চট্টগ্রাম জেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম মন্টু, মহানগর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. সরফরাজ খান চৌধুরী বাবুল, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম মহানগর ইউনিট কমান্ডার মোজাফফর আহমদ, সহকারী কমান্ডার সাধন চন্দ্র বিশ্বাস, জেলা ইউনিট কমান্ডের সহকারী কমান্ডার আবদুর রাজ্জাক, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ প্রমুখ।

আবু আজাদ/এমএসএইচ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]