কিস্তির টাকা দিতে না পেরে গলায় ফাঁস দিল স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৬:৪৮ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

হাটহাজারীর জোবরা গ্রাম থেকে একদিন বিশ্ব পেয়েছিল ক্ষুদ্র ঋণের ধারণা, সেই হাটহাজারীতেই এনজিওর কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক গৃহবধূ।

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন হাটহাজারী মডেল থানার ওসি মাসুদ আলম।

নিহত গৃহবধূর নাম রুপনা শর্মা (৩৮)। তিনি উত্তর মেখল মোজ্জাফফরপুর এলাকার রশিক ডাক্তার বাড়ির বাসিন্দা অরুণ কুমার শর্মার স্ত্রী। অরুণ কুমার পেশায় নাপিত।

স্থানীয় সূত্র জানায়, করোনার কারণে অরুণ কুমার শর্মার নিয়মিত কাজ না থাকায় কিছুদিন ধরে ঠিক সময়ে কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে পারছিলেন না গৃহবধূ রুপনা শর্মা। একদিকে সংসার অন্যদিকে কিস্তির টাকা। এসব পরিশোধ করতে না পেরে সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে আত্মহত্যা করেন অরুণের স্ত্রী রুপনা শর্মা।

নিহতের বড় মেয়ে জবা শর্মা জানান, রাতে তারা একসঙ্গে খাবার খেয়ে ছোট ভাইকে নিয়ে অন্য রুমে ঘুমিয়েছিলেন। প্রতিদিনের মতো বাবার সঙ্গে ঘুমিয়েছিলেন জবা। কিন্তু সকালে ঘুম থেকে উঠে মায়ের দেহ ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। তার দাবি অতিরিক্ত ঋণের টাকা শোধ করতে না পারায় মা গলায় ফাঁস দিয়েছেন।

আবু আজাদ/এএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]