অনিয়ম : ফরিদপুর জেলা মিনিবাস মালিক গ্রুপে প্রশাসক নিয়োগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪৫ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

ফরিদপুর জেলা মিনিবাস মালিক গ্রুপে প্রশাসক নিয়োগ দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। ফরিদপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে জেলা মিনিবাস মালিক গ্রুপের প্রশাসক নিয়োগ করা হয়েছে।

নির্বাচিত কার্যনির্বাহী পরিষদের মেয়াদোত্তীর্ণ, সমিতি পরিচালনায় অনিয়ম এবং কার্যনির্বাহী পরিষদ সহসাই পুনর্গঠনের সম্ভাবনা না থাকায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) এ সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। আদেশে বলা হয়, ‘ফরিদপুর জেলা মিনিবাস মালিক গ্রুপ’ বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে টিও লাইসেন্সপ্রাপ্ত একটি সংগঠন। যার লাইসেন্স নং-টিও ১৯/১৯৯৯।

‘ফরিদপুর জেলা মিনিবাস মালিক গ্রুপ’র কার্যনির্বাহী পরিষদের ২০১৮-২০ সময়ের জন্য নির্বাচিত পরিষদের মেয়াদ ইতিমধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে। এছাড়া বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে সমিতির সাধারণ সভা ডাকার পরিস্থিতি নেই। তাই কমিটিবিহীন সমিতির কার্যক্রম, সম্পদ ইত্যাদির সঠিক ব্যবস্থাপনা হচ্ছে না। এদিকে ফরিদপুর জেলা মিনিবাস মালিক গ্রুপের কার্যনির্বাহী পরিষদ সহসাই পুনর্গঠনের সম্ভাবনা নেই।

এছাড়া ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক গত ২৬ জানুয়ারি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে এক পত্রের মাধ্যমে জানিয়েছে যে, ফরিদপুর জেলা মিনিবাস মালিক গ্রুপ কর্তৃক সমিতি পরিচালনায় অনিয়ম সংঘটিত এবং সাধারণ মালিকদের স্বার্থ সংরক্ষণে অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের প্রতিবেদন পাঠান তিনি।

সার্বিক পরিস্থিতিতে ফরিদপুর জেলা মিনিবাস মালিক গ্রুপের বিদ্যমান সমস্যা নিরসনে বাণিজ্য সংগঠন অধ্যাদেশ, ১৯৬১-এর ১০ ধারা মোতাবেক ফরিদপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে জেলা মিনিবাস মালিক গ্রুপের প্রশাসক নিয়োগ করা হলো।

তিনি সংগঠনটির প্রাত্যহিক ও রুটিন কার্যাবলি পরিচালনা এবং দায়িত্ব গ্রহণের ১২০ দিনের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে বিধি মোতাবেক কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন সম্পন্নপূর্বক নির্বাচিত কমিটির নিকট দায়িত্ব হস্তান্তর করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে অবহিত করবেন। প্রশাসক বিধি মোতাবেক দায়িত্বভাতা পাবেন।

এমইউএইচ/এএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]