উন্নয়নের প্রধান হাতিয়ার প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা: স্পিকার

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৪১ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বর্তমানে উন্নয়নের প্রধান হাতিয়ার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা। প্রতিটি বিদ্যালয়ে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপনের মাধ্যমে এর ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার তথ্য প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষার বিকাশ ঘটিয়ে তরুণ প্রজন্মকে দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত করবে।

বৃহস্পতিবার পীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় অনলাইনে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং সেন্টার নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন স্পিকার।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সুদক্ষ ও সময়োপযোগী কার্যকর পদক্ষেপের কারণে আজ সবাই ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা ভোগ করতে সক্ষম হচ্ছে। এর ধারাবাহিকতায় বৈদেশিক উপার্জনের ক্ষেত্র হিসেবে আইসিটি সেক্টর জায়গা করে নেবে। করোনাকালীন ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল সকলে অনুধাবন করতে পেরেছে।

ড. শিরীন শারমিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ নির্দেশনা ও তত্ত্বাবধানে সকলের সমন্বিত প্রচেষ্টায় ডিজিটাল বাংলাদেশ আজ দৃশ্যমান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য সন্তান বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামালের নামে প্রকল্প ও আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের নামকরণ স্বার্থক ও সময়োপযোগী। কারণ, তিনি তরুণ প্রজন্মকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন।

রংপুর জেলার জেলা প্রশাসক মো. আসিব আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম, রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মো. আব্দুল ওয়াহাব ভূঞা, রংপুর জেলা পুলিশ সুপার বিপ্লব কুমার সরকার বক্তব্য রাখেন। শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মাণ স্থাপন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. মোস্তফা কামাল অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন।

এইচএস/এমএসএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]