নারী-শিশু নির্যাতন বন্ধে কমিশন গঠনের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৫২ পিএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

দেশের বিভিন্ন স্থানে নারী-শিশু নির্যাতন ও হত্যার প্রতিবাদ জানিয়েছেন মহিলা পরিষদের নেতৃবৃন্দ। এসব অপকর্ম বন্ধ এবং অপরাধীদের দ্রুত বিচারের দাবিসহ কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছেন তারা।

রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে এসব দাবি করা হয়।

মানববন্ধনে মহিলা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু বলেন, বর্তমানে কোভিডকালীন যখন মানুষ ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে তখন নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতার মাত্রা বৃদ্ধি সমগ্র সমাজকে আতঙ্কিত করে তুলেছে। দেশের সর্বত্র এবং প্রতিটি স্তরের নারী ও শিশুরা হত্যা ও ধর্ষণের শিকার হচ্ছে। সাভারের নীলা রায় হত্যা, খাগড়াছড়ির প্রতিবন্ধী আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণ এবং সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। আমরা এসব ঘটনার প্রতিবাদ জানাই।

ঘটনার সঙ্গে যুক্ত অপরাধীদের পারিবারিক শিক্ষা, সংস্কার, মনোসামসাজিক আচরণগত দিক আজ প্রশ্নবিদ্ধ— উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘এসব সহিংসতার ঘটনা প্রতিরোধে কমিশন গঠন করতে হবে। নারীর জন্য নিরাপদ বাসযোগ্য নগরী গড়তে প্রয়োজনে রাষ্ট্রকে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।’ এসব ঘটনার দ্রুত বিচার, তরুণ প্রজন্মকে সঠিক শিক্ষায় গড়ে তুলতে পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের প্রতি দাবি জানান তিনি।

সংগঠনের সহ-সভাপতি মাখদুমা নার্গিস রত্না বলেন, করোনার ভয়াবহতার চেয়ে নারীর প্রতি নির্যাতন ও নিরাপত্তহীনতার ভয় বেশি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ধর্ষণের শিকার নারীরা বিচার চাইতে আসলে নানাভাবে হয়রানির শিকার হয় যা কোনোভাবেই কাম্য নয়।

তিনি ঐক্যবদ্ধভাবে নারীর প্রতি সহিংসতার ঘটনা প্রতিহত করতে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

‘নারীর প্রতি অব্যাহত সহিংসতা, নারী হত্যা, ধর্ষণ বন্ধ কর’— শ্লোগানকে সামনে রেখে মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এই কর্মসূচি একইসঙ্গে সংগঠনের ৫৭টি জেলা শাখায় অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির অ্যাডভোকেসি ও লবি পরিচালক জনা গোস্বামীর সঞ্চালনায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সীমা মোসলেম, সহ-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মাসুদা রেহানা বেগম, আন্তর্জাতিক সম্পাদক রেখা সাহা, ঢাকা মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক রেহানা ইউনূস, সহ-সাধারণ সম্পাদক মঞ্জু ধর, লিগ্যাল এইড সম্পাদক শামীমা আফরোজ আইরিন, সংগঠনের কর্মকর্তা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এমএইচএম/এমএআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]