অপরিচ্ছন্ন নগরীর অপবাদ শিগগিরই দূর হবে : এলজিআরডি মন্ত্রী

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৫২ পিএম, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

ঢাকাসহ দেশের সকল নগরীকে নোংরা ও অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্ন বলে যে অপবাদ দেয়া হয় তা খুব শিগগিরই দূর করা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর গুলশান-২-এ বিচারপতি সাহাবুদ্দীন আহমদ পার্কে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় আয়োজিত সকল সিটি করপোরেশনের জন্য ভ্যাকুয়াম টাইপ রোড সুইপার ট্রাক বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা গত বছরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে এ বছর ঢাকাকে মশামুক্ত রাখতে সক্ষম হয়েছি। এই নগরীকে অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্ন বলে অপবাদ দেয়া হয়। জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সবাই দেশপ্রেমে উদ্ধুদ্ধ হয়ে কাজ করলে এ অপবাদ থেকেও আমরা মুক্তি পাব।’

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, ঢাকা শহরকে যদি আমরা পরিকল্পনা অনুযায়ী সাজাতে পারি, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে দৃষ্টিনন্দনভাবে গড়ে তুলতে পারি, তাহলে দেশের মানুষকে সৌন্দর্য উপভোগ করার জন্য আর বিদেশে যেতে হবে না।

মন্ত্রী বলেন, হাতিরঝিল থেকে উত্তরা পর্যন্ত ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট চালু এবং দুই পাশে সাধারণ মানুষের চলাচল করার ব্যবস্থা করা হবে। এজন্য একটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে।

দেশের মানুষ উন্নয়ন চায়। কিন্তু সে উন্নয়ন করতে গিয়ে যাতে জনজীবন অতিষ্ঠ না হয় সে বিষয়ে সজাগ থাকার আহ্বান জানান মো. তাজুল ইসলাম। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, উন্নয়ন করতে রাস্তা কেটে দীর্ঘসময় ধরে ফেলে রাখা হয়। এতে করে ধুলাবালি জমে পরিবেশ নষ্ট হয়। এগুলো বন্ধ করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

যারা ঢাকা শহরের আশপাশে নদ-নদী, খাল, পার্ক ও ফুটপাতসহ অবৈধভাবে সরকারি সম্পত্তি দখল করে আছেন তাদের দ্রুত ছেড়ে দিতে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে মন্ত্রী বলেন, সরকারি জায়গা অবৈধভাবে দখল করে রাখার অধিকার কারও নেই।

তিনি বলেন, দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়েছি দেশ ও মানুষের উন্নয়ন করার জন্য, দুর্নীতি করার জন্য নয়। যারা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকবে তাদের ছাড় দেয়া হবে না।

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনসহ স্থানীয় সরকার বিভাগের অধীনে থাকা সকল প্রতিষ্ঠানকে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করেন মন্ত্রী।

সিটি করপোরেশনগুলোকে সরবরাহকৃত ভ্যাকুয়াম টাইপ রোড সুইপার ট্রাকগুলো শহরের অলি-গলিতে প্রবেশ করতে সক্ষম উল্লেখ করে এগুলো ঠিকমতো রক্ষণাবেক্ষণ করার আহ্বান জানান স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম উপস্থিত ছিলেন।

এমইউ/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]