উচ্চশিক্ষায় উদ্ভাবন ও গবেষণায় জোর দেয়ার আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৩১ পিএম, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশ বিনির্মাণে উচ্চশিক্ষায় উদ্ভাবন, গবেষণা ও প্রযুক্তির ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।’ অদম্য বাংলাদেশের অভীষ্ট লক্ষ্য বাস্তবায়নে বিজ্ঞান, তথ্য প্রযুক্তি ও উদ্ভাবনকে কাজে লাগানোর ব্যাপারে তিনি পরামর্শ দেন।

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য অধ্যাপক ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন রচিত ‘অদম্য বাংলাদেশ’ শীর্ষক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্পিকার বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমীন চৌধুরী বলেন, ‘বিজ্ঞানমনস্ক চিন্তা, উদ্ভাবন, গবেষণা ও প্রযুক্তি নির্ভর উচ্চশিক্ষার বিষয়টি যেন আমরা ধারণ করি। অদম্য বাংলাদেশের অভীষ্ট লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়ার জন্য বিজ্ঞান, তথ্য প্রযুক্তি, গবেষণা ও উদ্ভাবনকে আমাদের কাজে লাগাতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সফল অগ্রযাত্রা ও সমগ্র বিশ্বে বাংলাদেশের বিস্ময়কর উন্নয়নের খণ্ড চিত্র গ্রন্থটিতে তুলে ধরা হয়েছে। বাংলাদেশকে এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি, দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়ন, উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার বিষয়াদিও গ্রন্থটিতে স্থান পেয়েছে। বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে ও সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা সুসংহত করতে এই গ্রন্থটি বেশ সহায়ক হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘জাতীয় ঐক্য ও দেশপ্রেম যেকোনো সংকট উত্তোরণের ক্ষেত্রে মূলমন্ত্র হিসেবে কাজ করে। ৭ই মার্চের ভাষণের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু সমগ্র বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে একটি স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছিলেন।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, ‘বর্তমান ও আগামী প্রজন্মের জন্য ‘অদম্য বাংলাদেশ’ গুরুত্বপূর্ণ একটি গ্রন্থ হবে। কারণ, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবোটিকস, বিগ ডাটাসহ বিভিন্ন উপকরণগুলো সহজে এই গ্রন্থে তুলে ধরা হয়েছে। এই গ্রন্থটি চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের বিষয়ে শিক্ষার্থীদের সচেতনতা ও আগ্রহ তৈরি করবে।’

jagonews24

ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহর সভাপতিত্বে মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন এবং বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান ও বিশেষ আলোচক হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন জাতীয় অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম ও বিশিষ্ট কথা সাহিত্যিক সেলিনা হোসেন।

এছাড়া, কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম, অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ এবং অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

গ্রন্থটিতে ২৪টি নিবন্ধ রয়েছে। গ্রন্থটি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে উৎসর্গ করা হয়েছে। ১২৬ পৃষ্ঠার ‘অদম্য বাংলাদেশ’ গ্রন্থটি প্রকাশ করেছে প্রথম পালক। অদম্য বাংলাদেশের প্রচ্ছদ পরিকল্পনা ও শিল্প নির্দেশনা দিয়েছেন এন কে কায়কোবাদ রানা এবং অলংকরণ করেছেন মামুন হোসাইন। গ্রন্থটির মূল্য ধরা হয়েছে ২৯০ টাকা।

এইচএস/এমএইচএম/এফআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]