‘কোন অবস্থাতেই নারী নির্যাতন মেনে নেয়া হবে না’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:০৭ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০২০

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, পুরুষতান্ত্রিক মনোভাব ফুটিয়ে তোলার জন্য ধর্ষক ও নির্যাতনকারীরা নারীদের দুর্বল মনে করে। নারীরা দুর্বল নয়। এদেশে প্রধানমন্ত্রী নারী, স্পিকার নারী, সংসদের উপনেতা ও বিরোধীদলীয় নেতাও নারী। দক্ষতা ও যোগ্যতার সঙ্গে নারীরা বিচারক, সচিব, মেজর জেনারেল, ডিসি ও এসপি পদে দায়িত্ব পালন করছে। কোন অবস্থায়ই নারী নির্যাতন মেনে নেয়া হবে না।

তিনি আরও বলেন, নারী নির্যাতনের যে কোনো ঘটনা ঘটলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ত্বরিতগতিতে ব্যবস্থা নিচ্ছে। এ ছাড়া মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগের মাধ্যমে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে কাজ করে যাচ্ছে।

বুধবার ঢাকায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমির সভাকক্ষ থেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে মহিলা বিষয়ক অধিদফতর আয়োজিত মতবিনিময় সভার দ্বিতীয় দিনে রাজশাহী, রংপুর, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি এ কথা বলেন।

indira

মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের মহাপরিচালক পারভীন আকতারের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক সচিব কাজী রওশন আক্তার, অতিরিক্ত সচিব ড. মহিউদ্দিন আহমেদ ও যুগ্মসচিব মো. মুহিবুজ্জামানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও প্রকল্প পরিচালকরা।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সচিব কাজী রওশন আক্তার বলেন, বাংলাদেশের নারীরা সোচ্চার হতে শুরু করেছে। নির্যাতন ও সহিংসতার বিষয় গোপন রাখার ধ্যান-ধারণা থেকে বের হয়ে এসেছে। নারীরা যেন নির্যাতন ও সহিংসতার ঘটনা সাহসের সঙ্গে তুলে ধরতে পারে সেজন্য মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্যাতিত নারীদের পাশে দাঁড়াতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে মহাপরিচালক পারভীন আকতার বলেন, নারীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নের পাশাপাশি নারী ও শিশুর প্রতি নির্যাতন এবং সহিংসতা প্রতিরোধে মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রম আরও জোরদার করতে হবে।

মতবিনিময় সভায় কর্মকর্তাদের যানবাহন, থোক বরাদ্দ, ক্ষুদ্র ঋণের পরিমাণ বৃদ্ধি এবং জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের ভবন নির্মাণের বিষয় গুরুত্ব সহকারে বিবেচনার আশ্বাস দেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী।

এমইউএইচ/জেএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]