নোংরা পরিবেশ : অষ্টব‌্যঞ্জন রেস্টুরেন্ট ম্যানেজার কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:২৮ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০২০

চরম নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর প‌রি‌বে‌শে রান্না। অস্বাস্থ‌্যকর পন্থায় খাদ‌্য উপকরণ সংরক্ষণ। রেস্টুরেন্ট কর্মচারীদের নেই স্বাস্থ্যসনদ। স্বাস্থ‌্যবি‌ধি না মে‌নে রান্নাঘ‌রেই বসবাস করছেন শ্র‌মিকরা।

বুধবার (২১ অ‌ক্টোবর) রাজধানীর কাঁটাবন ঢা‌লের নিউ অষ্টব‌্যঞ্জন রেস্টু‌রে‌ন্টে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। অভিযানে প্রতিষ্ঠানটিতে এমন দৃশ্য দেখতে পান বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের (বিএফএসএ) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাওছার হো‌সেন।

jagonews24

এসব অপরা‌ধে রেস্তোরাঁটিকে তিন লাখ টাকা জ‌রিমানা করা হয়। কিন্তু জ‌রিমানার অর্থ তাৎক্ষণিক প্রদা‌নে ব্যর্থ হওয়ায় এর ম্যানেজার‌কে কারাগা‌রে পাঠানো হয়।

বিএফএসএ সং‌শ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, আজ বিএফএসএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাওছার হোসেনের নেতৃত্বে কাঁটাবন ঢা‌লের নিউ অষ্টব‌্যঞ্জন রেস্টু‌রে‌ন্টে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

jagonews24

অভিযানকালে চরম নোংরা ও অস্বাস্থ‌্যকর প‌রি‌বে‌শে রান্না ও খাদ‌্য উপকরণ রাখ‌তে দেখা যায়। শ্রমিক‌দের ছিল না কোনো স্বাস্থ‌্যবি‌ধি কিংবা স্বাস্থ‌্যসনদ এবং রান্নাঘ‌রেই তা‌দের বসবাস ও রাত্রিযাপন।

জনস্বা‌স্থ্যের প্রতি তা‌দের এহেন উদাসীনতা এবং নিরাপদ খাদ্য আইন, ২০১৩ এর বিধানসমূহ লঙ্ঘনের কারণে রেস্টুরেন্ট ম্যানেজারকে ‌তিন লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

jagonews24

অর্থদণ্ড তাৎক্ষণিকভাবে প্রদা‌নে ব্যর্থ হওয়ায় ম্যা‌নেজার‌কে কারাগা‌রে প্রেরণ করা হয়। অভিযানে নিরাপদ খাদ্যপরিদর্শক মিজানুর রহমান সিকদার ও ব্যাটালিয়ন আনসারের সদস্যরা উপ‌স্থিত ছিলেন।

এসআই/বিএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]