লোহা গলানোর মেশিন বিস্ফোরণ, আরও দুজনের মৃত্যু

ঢামেক প্রতিবেদক
ঢামেক প্রতিবেদক ঢামেক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫২ পিএম, ২৪ অক্টোবর ২০২০
ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ এলাকায় একটি স্টিল মিলে লোহা গলানোর মেশিন বিস্ফোরণে আরও দুজনের মৃত্যু হয়েছে। শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে তাদের মৃত্যু হয়। তারা হলেন- আবু সিদ্দিক মিয়া (৩০) ও সাকিল (২০)।

গত বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) রাত ৩টার দিকে তাদের মৃত্যু হয়। সেখানে আরও দুজন চিকিৎসাধীন আছেন। তারা হলেন- রাজু (৪০) ও রফিক (৪৫)।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. পার্থ শংকর পাল বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, দগ্ধ পাঁচজনকে আনা হয়েছিল। তাদের মধ্যে আবু সিদ্দিক মিয়া ও সাকিল বৃহস্পতিবার রাতে মারা যান। ফাহিম মারা যান ঢামেকে। তাদের শরীরের ৯৫ শতাংশ পোড়া ছিল। এখনও চিকিৎসাধীন রাজু ও রফিক। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

মৃতের ভাই মাহিন জানান, তারা রূপগঞ্জের বরফা এলাকায় প্রিমিয়ার রি-রোলিং স্টিল মিলে কাজ করতেন। গত বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) রাত আড়াইটার দিকে কাজ করার সময় লোহা গলানোর ভাট্টি (মেশিন) বিস্ফোরিত হয়। গলানো লোহা তাদের শরীরে পড়লে দগ্ধ হন। ঘটনাস্থলে মারা যান মিজান নামের এক শ্রমিক। বাকিদের ভোরে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। সেখানে আইসিইউ বেড খালি না থাকায় ধানমন্ডির একটি ক্লিনিকে ফাহিমকে নেয়া হয়। ক্লিনিকে তার অবস্থার অবনতি হলে নেয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে তার মৃত্যু হয়। বৃহস্পতিবার রাতে মারা যান আবু সিদ্দিক মিয়া ও সাকিল।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়াও বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে তাদের মৃত্যু হয়। মৃতদেহগুলো ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

এমএআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]