গরম পোশাক কেনার ধুম পড়েছে

মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল
মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১১:১৫ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২০

গরম পোশাক কেনার ধুম পড়েছে। শীত এখনও জেঁকে না বসলেও নগরবাসিন্দারা আগাম প্রস্তুতি হিসেবে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার ছোটবড় শপিংমল ও মার্কেট থেকে শুরু করে ফুটপাত সর্বত্রই গরম পোশাক দেখতে ও কিনতে ঢু মারছেন। পছন্দসই সোয়েটার, কার্ডিগান, জ্যাকেট, শাল, চাদর, ব্লেজার, ট্রাউজার ও স্যুট কিনতে দোকানে দোকানে ঘুরছেন। পছন্দ ও দামে বনিবনা হলেই পোশাকাদি কিনে নিচ্ছেন।

jagonews24

সাধারণত সপ্তাহে ছুটির দিন শুক্র ও শনিবার মার্কেটগুলোতে ভিড় বেশি থাকে। তবে হঠাৎ করে শীত নামতে শুরু করায় বুধবারও (২৫ নভেম্বর) মার্কেটগুলোতে ছিল উপচেপড়া ভিড়। বেচাকেনাও বেশ ভালো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন একাধিক মার্কেট ব্যবসায়ী।

jagonews24

বুধবার সন্ধ্যায় নিউমার্কেট, গাউছিয়া মার্কেট, সায়েন্স ল্যাবরেটরি প্রিয়াঙ্গন শপিং সেন্টার, এলিফ্যান্ট রোড, ধানমন্ডি ও জিগাতলা এলাকার ছোটবড় মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে, ক্রেতাদের বেশ ভিড়। দোকানিরা নতুন নতুন ডিজাইনের গরম পোশাক বের করছেন। করোনার কারণে আগে ভালো বেচাকেনা করতে না পারায় অধিকাংশ দোকানমালিক-কর্মচারীর মন খারাপ করে বসে থাকলেও সামাজিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে বর্তমানে বিপুল সংখ্যক ক্রেতার আগমনে তারা খুবই খুশি। শীতের প্রাক্কালে ক্রেতাদের আকর্ষণ করতে হরেক রকম শীতের পোশাক মজুত ও বিক্রি করেছেন।

jagonews24

ঢাকা কলেজের বিপরীতে গ্লোব শপিং সেন্টারের আন্ডারগ্রাউন্ডের বিভিন্ন দোকানে ফ্যাশনেবল শীতের গেঞ্জি, সোয়েটার, জ্যাকেট ও ব্লেজার দেখা যায়। মেয়েদের জন্য কার্ডিগান ও শাল চাদরের হরেক রকম মজুত রয়েছে।

jagonews24

কলাবাগানের বাসিন্দা আফসার হোসেন স্ত্রী ও ১০ বছরের ছেলেকে নিয়ে জ্যাকেট ও ব্লেজার কিনতে এসেছেন। অল্পকথায় দাম বলে দুই হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে জ্যাকেট ও ব্লেজার কিনে ফেললেন তিনি।

jagonews24

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে আফসার হোসেন বলেন, এ মার্কেটে মাঝে মাঝে অপেক্ষাকৃত কমদামে ভালো গরম পোশাক পাওয়া যায়। শপিংমলের চেয়ে অন্তত ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ কমদামে একই ধরনের পোশাক এখানেই পাওয়া যায়।

jagonews24

নিউমার্কেট থেকে শুরু করে আশপাশের দোকানদার ও ফুটপাত ব্যবসায়ীরা জানান, করোনার সংক্রমণ এখনও শেষ না হলেও নিউ নরমাল লাইফে অভ্যস্ত হচ্ছে মানুষ। প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে মুখে মাস্ক পরিধান করে অনেকেই মার্কেটে কেনাকাটা করতে আসছেন। গত দুদিন ধরে একটু একটু শীত পড়ায় ক্রেতাদের আগমন অনেক বেড়েছে। বেচাকেনাও বেশ ভালো হচ্ছে।

jagonews24

এদিকে আজ (বুধবার) সন্ধ্যা ৭টা থেকে পরবর্তী ছয় ঘণ্টার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে। আবহাওয়া প্রধানত শুস্ক থাকতে পারে। উত্তর-পশ্চিম/উত্তর দিক থেকে ঘণ্টায় ছয় থেকে ১২ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে।

jagonews24

রাতের তাপমাত্রা এক থেকে দুই ডিগ্রি বৃদ্ধি পেতে পারে। বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় তাপমাত্রা ছিল ২২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবার রাজধানীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৯ দশমিক তিন ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন ১৬ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এমইউ/বিএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]