হাম-রুবেলার টিকাদানে ইউপি চেয়ারম্যানদের সহযোগিতার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫৫ এএম, ২৬ নভেম্বর ২০২০
ফাইল ছবি

জাতীয় হাম-রুবেলার (এমআর) টিকাদান ক্যাম্পেইন-২০২০ সফলে সহযােগিতা করতে সব ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যানকে নির্দেশনা দিয়েছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। উপসচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত চিঠি বুধবার (২৫ নভেম্বর) জেলা প্রশাসকদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ থেকে প্রাপ্ত আধা-সরকারি পত্রটি চিঠির সঙ্গে পাঠানো হলো। এই পত্রের নির্দেশনা মােতাবেক আগামী ৫ ডিসেম্বর হতে ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত ৬ সপ্তাহব্যাপী হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন সফলে সর্বাত্মক সহযােগিতা প্রদানে সব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে প্রয়ােজনীয় নির্দেশনা প্রদানের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরােধ করা হলাে।

এর আগে গত ১৮ নভেম্বর স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান জাতীয় হাম-রুবেলা (এমআর) টিকাদান ক্যাম্পেইন সফল করার জন্য সহযােগিতা চেয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের কাছে একটি চিঠি দেন।

চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি (ইপিআই) ১৯৭৯ সাল থেকে শিশুদের বিভিন্ন সংক্রামক রােগজনিত মৃত্যু ও পঙ্গুত্বের হার কমিয়ে আনার লক্ষ্যে সারাদেশে টিকাদান কর্মসূচি পরিচালনা করে আসছে। ইপিআই-এর অন্যান্য লক্ষ্যসমূহের মধ্যে ২০২২ সাল নাগাদ জাতীয় পর্যায়ে হাম-রুবেলা (এমআর) টিকার কাভারেজ শতকরা ৯৫ ভাগে উন্নীতকরণ এবং ২০২৩ সাল নাগাদ হাম-রুবেলা দূরীকরণ অবস্থা অর্জন অন্যতম। হাম-রুবেলা রােগ ও এর জটিলতা থেকে রক্ষা পাওয়ার সর্বোৎকৃষ্ট উপায় হলো, সঠিক সময়ে শিশুকে হাম-রুবেলা (এমআর) টিকা প্রদান করা। নিয়মিত টিকাদান কর্মসূচিতে শিশুদেরকে ৯ মাস ও ১৫ মাস বয়সে মােট ২ ডােজ এমআর টিকা প্রদান করা হয়ে থাকে।

চিঠিতে আরও বলা হয়, হাম নির্মূল ও রুবেলা নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সরকার ৯ মাস থেকে ১০ বছরের নিচের সব শিশুকে ১ ডােজ এমআর টিকা প্রদানের জন্য আগামী ৫ ডিসেম্বর থেকে ১৪ জানুয়ারি হাম- রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ক্যাম্পেইন চলাকালে সারাদেশে ৯ মাস থেকে ১০ বছরের নিচের প্রায় ৩ কোটি ৪০ লাখ শিশুকে ১ ডােজ এমআর টিকা দেয়া হবে।

উল্লেখ্য, চলমান কোভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারি বিবেচনা করে দেশে শারীরিক দূরত্ব বজায়, মাস্ক পরিধান, হাঁচি-কাশির শিষ্টাচার পালন ও সঠিক পদ্ধতিতে হাত ধােয়া ইত্যাদি স্বাস্থ্য সুরক্ষামূলক নিয়মাবলীর যথাযথ প্রতিপালন সাপেক্ষে ক্যাম্পেইনটি পরিচালিত হবে।

আইএইচআর/এমএসএইচ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]