রাজধানীতে যুবককে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা: গ্রেফতার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:১৭ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০২০
ফাইল ছবি

রাজধানীর শ্যামপুর থানা এলাকার এস আহাম্মেদ সিএনজি ফিলিং স্টেশনের নজেল অপারেটর মো. রিয়াদ হোসেনের (২০) গায়ে অকটেন ঢেলে আগুন লাগিয়ে হত্যাচেষ্টায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার (২৫ নভেম্বর) অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করে শ্যামপুর থানা পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন- মাহমুদুল হাসান ইমন (২২), ফাহাদ আহম্মেদ পাভেল (২৮) ও শহিদুল ইসলাম রনি (১৮)। তারা এস আহাম্মেদ সিএনজি ফিলিং স্টেশনে কাজ করেন।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) ইফতেখায়রুল ইসলাম বলেন, গত ৪ নভেম্বর শ্যামপুর থানা এলাকার জুরাইন মাজার গেট সংলগ্ন এস আহাম্মেদ সিএনজি ফিলিং স্টেশনের নজেল অপারেটর হিসেবে যোগ দেন রিয়াদ হোসেন। সেখানে কাজ শুরুর পর থেকেই তার সঙ্গে খারাপ আচরণ করতেন ফাহাদ আহম্মেদ পাভেল। এক পর্যায়ে গত ২৪ নভেম্বর ভোর ৪টা ১০ মিনিটের দিকে ফিলিং স্টেশনের স্টাফ রুমে ইমন ও রনি হত্যার উদ্দেশ্যে রিয়াদের গায়ে অকটেন ঢেলে দিয়াশলাই জ্বেলে আগুন ধরিয়ে দেন। আর এর সব কিছুই ঘটে ফাহাদের পরিকল্পনায়।

তিনি বলেন, আগুনে রিয়াদের হাঁটু থেকে গলা পর্যন্ত শরীরের অধিকাংশ স্থান পুড়ে যায়। এরপর পাম্পের অন্যান্য লোকসহ আশপাশের কয়েকজন মিলে তাকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করেন। বর্তমানে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রিয়াদ।

এ ঘটনায় রিয়াদের বাবার অভিযোগে ভিত্তিতে শ্যামপুর থানায় মামলা হয়। ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে গ্রেফতারদের আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান এডিসি ইফতেখায়রুল ইসলাম।

জেইউ/এমএসএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]