তারুণ্যের পদচারণায় মুখর ‌‘নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনী’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:০৪ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০২১

কেউ ছবি তুলছেন রঙ-বেরঙের ছাতার নিচে, কেউবা ঘুরেফিরে দেখছেন শিল্পকর্ম। কেউ কেউ আবার তন্ময় হয়ে তাকিয়ে আছেন শিল্পীর চিত্রকর্মের দিকে। শিল্পকর্ম নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে যারা আলাপ করছিলেন তাদের বেশিরভাগই তরুণ।

চলমান করোনাভাইরাস মহামারির ত্রাস কাটিয়ে ওঠার জন্য অধীর অপেক্ষা করে আছেন গোটা বিশ্বের মানুষ। এমনই এক মুহূর্তে জাতীয় শিল্পকলা একাডেমিতে চলছে ‘২২তম নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনী-২০২০’। যৌথভাবে এর আয়োজন করেছে শিল্পকলা একাডেমি ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

jagonews24

তারুণ্যকে প্রাধান্য দিয়ে আয়োজিত এ প্রদর্শনীতে বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে দেখা গেছে তরুণদের স্বতস্ফুঃর্ত অংশগ্রহণ।

আয়োজকদের পক্ষে শৈলী জানান, দর্শনার্থী বিশেষ করে তরুণ সম্প্রদায়ের ব্যাপক আগ্রহ ও অংশগ্রহণে বাড়ানো হয়েছে প্রদর্শনীর সময়। গত বছরের ৩০ নভেম্বরে শুরু হয়ে প্রদর্শনী শেষ হওয়ার কথা ছিল ২৯ ডিসেম্বর। কিন্তু তারুণ্যের জয়গানে সময় বেড়েছে নতুন বছরের ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত।

jagonews24

জাগো নিউজকে শৈলী বলেন, ‘মোট ১১ মাধ্যমে কাজ জমা দিয়েছেন শিল্পীরা। কিউরেটেড আর্ট গ্যালারি আমাদের নতুন সংযোজন। এই প্রদর্শনীতে স্থান ৩৩৭ জন শিল্পীর ৩৬৮টি শিল্পকর্ম পেয়েছে। প্রদর্শনীটি নিয়ে তরুণদের মধ্যে ব্যাপক উদ্দীপনা লক্ষ্য করছি।’

রাজধানীর ব্যাংকার ইউসুফ খুঁটিয়ে দেখছিলেন শিল্পকর্মগুলো। সেগুলোর পাশে থাকা বর্ণনা ছবি তুলে নিয়েছেন।

jagonews24

জাগো নিউজকে তিনি বলেন, ‘এবার যে জিনিসটা ভালো হয়েছে তা হলো প্রত্যেকটা ছবির পাশেই বর্ণনা দেয়া আছে। ফলে ছবি বুঝতে সুবিধা হচ্ছে। শিল্পকর্মের বিস্তারিত বুঝতে সুবিধা হয়েছে। তরুণ শিল্পীরা এবার করোনাভাইরাসসহ চলমান সামাজিক সমস্যা তাদের শিল্পকর্মে ফুটিয়ে তুলেছেন।’

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আমান বলেন, ‘এবারের কাজগুলো অনেক ভালো হয়েছে। শিল্পীরা গণ্ডির মধ্যে না থেকে নিজেদের বিকশিত করছেন।’

এসএম/এসএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]