হয়রানিমুক্ত অভিবাসন নিশ্চিতের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩৪ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২১

নিরাপদ ও হয়রানিমুক্ত অভিবাসন নিশ্চিতের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করা হয়েছে। শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ অভিবাসী শ্রমিক ফোরাম ও বাংলাদেশ অভিবাসী মহিলা শ্রমিক অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

এ সময় অভিবাসী শ্রমিকদের বিনামূল্যে করোনা টেস্ট করাসহ দ্রুত সনদ প্রদানের অনুরোধ করা হয়। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, করোনা মহামারিতে বিদেশ থেকে লাখ লাখ শ্রমিক দেশে শূন্য হাতে ফেরত এসেছে।

এই অসহায় শ্রমিকরা সরকারি কোনো সহায়তা না পাওয়ায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন। অনেক শ্রমিক ঋণগ্রস্ত হয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। অথচ প্রবাসী কল্যাণ তহবিলে এই শ্রমিকদের অর্জিত কোটি কোটি জমা রয়েছে। প্রবাসী কল্যাণ নামে একটি ব্যাংক আছে। এই ব্যাংক প্রবাসফেরত শ্রমিকদের কোনো সহায়তায় এগিয়ে আসেনি।

তারা আরও বলেন, নানা অজুহাতে ব্যাংক এই প্রবাসফেরত শ্রমিকদের পুনর্বাসনে গড়িমসি করছে। সম্প্রতি কোনো কোনো দেশে যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু হলেও সেখানে বিদেশফেরত শ্রমিকরা যেতে পারছে না। কারণ তাদের অনেকের ভিসার মেয়াদ কিংবা কার্যাদেশ শেষ হয়ে গেছে। আমরা বারবার সরকারের কাছে অনুরোধ করছি। আশা করছি, সরকার উদ্যোগ গ্রহণ করে এই অসহায় শ্রমিকদের সংকট নিরসনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, করোনা ভ্যাকসিন সনদ পেতে সরকার ফি নির্ধারণ করলেও অনেক ক্ষেত্রে এই আদেশ মানা হচ্ছে না। অনেকের ক্ষেত্রে সরকার নির্ধারিত ফি’র অতিরিক্ত নেয়া হচ্ছে। এতে করে অভিবাসী শ্রমিকদের জীবনে মরার উপর খাড়ার ঘাঁ তৈরি হয়েছে।

বাংলাদেশ অভিবাসী শ্রমিক ফোরামের সভানেত্রী সাবিনা চৌধুরী সভাপতিত্বে মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন শ্রমিক নেতা আবুল হোসাইন। অন্যদের মধ্যে বাংলাদেশ অভিবাসী মহিলা শ্রমিক অ্যাসোসিয়েশনের সভানেত্রী লিলি জাহান, সাধারণ সম্পাদক শেখ রুমানা, সহ-সভাপতি নীলা মল্লিক, ফেরদৌসি বেগম, সাংগঠনিক সম্পাদক শিউলী আক্তার, দফতর সম্পাদক নুরুন্নাবা আরিফ ও কোষাধ্যক্ষ তপন সাহাসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এওয়াইএইচ/এমআরএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]