ঘাটারচর থেকে কাঁচপুর কোম্পানির মাধ্যমে চলবে বাস

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪৫ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২১

গণপরিবহনে শৃঙ্খলা ফেরাতে রুটের পরিধি বাড়িয়ে কেরানীগঞ্জের ঘাটারচর থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত কোম্পানির মাধ্যমে বাস চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাস রুট রেশনালাইজেশন কমিটি। আগে ঘাটারচর থেকে মতিঝিল পর্যন্ত বাস চালুর কথা ছিল।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নগর ভবনে বাস রুট রেশনালাইজেশন কমিটির ১৫তম সভা শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান সংস্থাটির মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

তিনি বলেন, ঘাটারচর থেকে মতিঝিল পর্যন্ত রুটের পরিকল্পনা ছিল। এখন এটাকে কাঁচপুর পর্যন্ত নিয়ে যাচ্ছি। এই রুটে প্রায় ৩৪টি জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। এসব জায়গায় বাস বে হবে এবং কিছু কিছু জায়গায় বাস স্টপেজ হবে।

তাপস বলেন, আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল করার জন্য চিহ্নিত ১০টি জায়গায় আমরা পরিদর্শন করেছি। সরেজমিনে পরিদর্শনের প্রেক্ষিতে আমরা বিরুলিয়ার বাটুলিয়ায় একটি জায়গা নির্ধারণ করেছি। সেখানে আন্তঃজেলা একটি টার্মিনাল হবে। মূলত উত্তরাঞ্চলের যে বাসগুলো আছে, সেখানে এসব বাস থাকবে।

সাভারের হেয়ায়েতপুরে একটি আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল করা হবে। দক্ষিণাঞ্চলের জন্য কেরানীগঞ্জের বাঘাইরে একটি জায়গা নির্ধারণ করেছি এবং আরেকটি জায়গা কাঁচপুরে। এই চারটি জায়গায় আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল স্থাপন করলে ঢাকা শহরের ওপর থেকে চাপ কমে যাবে। সায়েদাবাদ, গাবতলী ও মহাখালী টার্মিনালকে আমরা সিটি টার্মিনাল হিসেবে ব্যবহার করতে পারব।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে এ সিদ্ধান্তটি চূড়ান্ত করা হয়েছে। সিদ্ধান্তের বিষয়টি সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রণালয়ে পাঠাব।

ঢাকা দক্ষিণের মেয়র বলেন, প্রাথমিকভাবে কোন কোম্পানির মাধ্যমে কীভাবে চলবে, কতগুলো বাস চলবে, কতগুলো প্রতিষ্ঠান সম্পৃক্ত, আয় কীভাবে বণ্টন হবে, কীভাবে পরিচালিত হবে সামগ্রিক বিষয় নিয়ে নীতিমালা হবে। আশা করি ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে অংশীজনদের নিয়ে বসে একটি খসড়া তৈরি করবে। আগামী সভার আগেই খসড়া নীতিমালা প্রস্তুত করলে কোম্পানি গঠনের দিকে এগিয়ে যাবে।

তিনি বলেন, গত সভায় একটি নির্দেশনা দিয়েছিলাম রাত ১২টার পর বিআরটিসি বাস যত্রতত্র রাখা যাবে না। এই বাসগুলো তাদের নিজস্ব ডিপো টার্মিনাল বা তাদের জায়গায় রাখতে হবে। এ বিষয়ে অনেক দূর অগ্রগতি হয়েছে। তবে কিছু বাস এখনো থাকছে জায়গা সংকুলান হচ্ছে না। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বিআরটিসি সব বাস থাকার ব্যবস্থা করবে।

সভায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, বাস রুট রেশনালাইজেশনের মাধ্যমে নগরে যানজট কমবে। সেই লক্ষ্যে তারা কাজ করে যাচ্ছেন।

এমএমএ/বিএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]