‘আমার গ্রাম আমার শহর’ টেকনিক্যাল প্রজেক্টের অনুমোদন শিগগিরই

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৪৩ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০২১

আমার গ্রাম আমার শহর প্রকল্পের টেকনিক্যাল প্রজেক্ট শিগগিরই অনুমোদন দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

বুধবার (২০ জানুয়ারি) স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সভাপক্ষে মন্ত্রীর সভাপতিত্বে ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ দেশের প্রতিটি গ্রামে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে গঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির দ্বিতীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমার গ্রাম আমার শহর, প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার। এই অধিকারকে বাস্তবায়ন করার জন্য আমরা ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি সভা করে একটি টেকনিক্যাল প্রজেক্ট তৈরি করেছি এবং সেটা অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। আশা করি অল্প সময়ের মধ্যে প্রজেক্টটা অনুমোদন হয়ে যাবে। এরপর আমরা ১৫টি গ্রামে পাইলট প্রজেক্ট করবো।

মন্ত্রী বলেন, আজকের সভায় গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হলো, কয়েকটি মন্ত্রণালয় যাদের সঙ্গে পরস্পরের সঙ্গে কাজের ধরনের মিল আছে তাদেরকে মিলিয়ে কয়েকটি সাব কমিটি করা হয়েছে। ক্লাস্টার করা হয়েছে। এই কমিটিগুলো ঘন ঘন মিটিং করবে, তাদের করণীয়গুলো ঠিক করবে এবং চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য সহযোগিতা করবে।

তিনি আরও বলেন, গ্রামগুলোতে বিদ্যুৎ যাবে, সুপেয় পানির ব্যবস্থা থাকবে, আধুনিক পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা হবে, শিক্ষার ব্যবস্থা উন্নত হবে, স্বাস্থ্য ব্যবস্থা উন্নত হবে, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হবে, কৃষি ব্যবস্থাপনা আধুনিকায়ন হবে এবং লাভজনক হবে, কর্মসংস্থান তৈরি হবে, ব্যাংকিং সিস্টেম সম্প্রসারণ হবে, বাজার ব্যবস্থাপনা আধুনিকায়ন করা হবে, সামগ্রিকভাবে একটি উন্নত জীবন যাত্রার জন্য যে ব্যবস্থাপনা মানুষের জন্য প্রয়োজন সেগুলোর সব কিছুই সেখানে করা হবে। এটা একটি দীর্ঘ প্রকল্প, দীর্ঘ সময় ধরে প্রকল্পটি চলবে।

এ সময় পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেন, বিভিন্ন উপ-কমিটি বিভিন্ন স্তরে দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করবে। আমাদের ইতোমধ্যে দুই বছর অতিবাহিত হয়ে গেছে, বাকি সময়ের মধ্যে আশা করি ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ উদ্যোগটি দৃশ্যমান হবে।

এ সময় পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিবসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব ও কর্মকর্তারা বক্তব্য রাখেন।

আইএইচআর/এআরএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]