দেশের প্রথম হাইড্রোজেন উৎপাদন প্ল্যান্টের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫৯ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০২১

হাইড্রোজেন জ্বালানি উৎপাদনে চট্টগ্রামে স্থাপন করা হচ্ছে দেশের প্রথম হাইড্রোজেন এনার্জি গবেষণাগার। বুধবার (২০ জানুয়ারি) এই হাইড্রোজেন উৎপাদন প্লান্টের কাজ উদ্বোধন করেছে বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ (বিসিএসআইআর)। এ সময় হাইড্রোজেন উৎপাদন প্ল্যান্টের ১০ দিনব্যাপী কর্মশালারও উদ্বোধন করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিসিএসআইআরের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো আফতাব আলী শেখ।

তিনি বলেন, ‘সাশ্রয়ী হাইড্রোজেন উৎপাদন এ প্রকল্পের অন্যতম মাইলস্টোন। দৈনন্দিন বর্জ্য ও বায়োমাসকে ফিডস্টক হিসেবে ব্যবহার করে হাইড্রোজেন উৎপাদনের পাইলট প্রসেস প্ল্যান্ট স্থাপন কাজ বিজয়ের মাসে বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়েছে। প্রথমবারের মতো সংযোজিত প্রসেস প্ল্যান্টটি বাংলাদেশের গবেষণা ও উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে, যার অনুকরণে বাণিজ্যিক উৎপাদনের শিল্পকারখানা স্থাপন করা সম্ভব হবে। এই শিল্পের সম্প্রসারণের মধ্যদিয়েই জয় হবে জ্বালানি সক্ষমতা এবং নবায়ণযোগ্য জ্বালানি লক্ষ্যমাত্রা। পানিকে কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহার করে হাইড্রোজেন উৎপাদনের প্রযুক্তিও শিগগিরই সংযোজন হবে। এই প্রযুক্তিতে দক্ষ জনবল তৈরির লক্ষ্যে আজ সপ্তাহব্যপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা শুরু হলো।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিসিএসআইআরের সদস্য (প্রশাসন ও অর্থ) মুহাম্মদ শওকত আলী, চট্টগ্রাম গবেষণাগারের পরিচালক ড. মোহাম্মদ মোস্তফা এবং প্রকল্প পরিচালক ড. মো. আবদুস সালাম। তারা সবাই পাইলট প্ল্যান্টের হাইড্রোজেন উৎপাদন প্রক্রিয়া সরেজমিনে পরিদর্শন করেন।

বাংলাদেশে পরিবেশবান্ধব হাইড্রোজেন জ্বালানি অন্তর্ভুক্তির লক্ষ্যে হাইড্রোজেন এনার্জি গবেষণাগার স্থাপন প্রকল্প বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বাস্তবায়ন করছে বিসিএসআইআর। ২০১৮ থেকে ২০২২ মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

প্রকল্পের মূল লক্ষ্য হলো হাইড্রোজেন উৎপাদন, মজুদ ও সরবরাহ সংশ্লিষ্ট গবেষণা ও মান নিয়ন্ত্রণ এবং সে লক্ষ্যে অবকাঠামো নির্মাণ ও জাতীয় পর্যায়ের একটি রেফারেন্স সেন্টারের আঙ্গিকে সেবা প্রদান করা।

পিডি/ইএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]