প্রকল্পে অযৌক্তিক ব্যয় পরিহার করতে হবে : প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৫৮ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২১

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, ‘প্রকল্পে কোনো ধরনের অযৌক্তিক ব্যয় করা যাবে না। কেনাকাটাসহ অন্যান্য প্রক্রিয়ায় অস্বাভাবিক কিছু করা যাবে না। প্রকল্প প্রস্তাবে বাজারমূল্যের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ দাম নির্ধারণ করতে হবে। রাষ্ট্রের অর্থ অপব্যয়ের জন্য নয়। প্রকল্প নিয়ে কোনো নেতিবাচক প্রচারণায় আমরা থাকতে চাই না।’

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) সচিবালয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়, মৎস্য অধিদফতর এবং বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন করপোরেশনের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রকল্প পরিচালকদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা অনিয়ম, অস্বচ্ছতা বা দুর্নীতিতে সম্পৃক্ত হবেন না। প্রকল্পগুলো নিজেরা ধারণ করার চেষ্টা করবেন। গতানুগতিকভাবে দফতরে বসে কাজ না করে মাঠে যেতে হবে। শুধু মাঠ পরিদর্শনই করলেই হবে না বরং মাঠে থাকতে হবে। একইসঙ্গে মাঠ পরিদর্শনে প্রাপ্ত বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। রাষ্ট্র নানাভাবে আপনাদের সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে। ফলে রাষ্ট্রের প্রতি দায়িত্ববোধের জায়গা কোনোভাবে বিস্মৃত হওয়া উচিত নয়।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘আপনাদের কাছ থেকে পরিচ্ছন্ন সেবা, আন্তরিকতা ও একাগ্রতা প্রত্যাশা করি। প্রকল্পের ধীরগতি কোনোভাবেই কাঙ্ক্ষিত নয়। স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা, নিয়ম অনুসরণ করা এবং আইন প্রতিপালন করার জন্য কাজের সমন্বয় থাকতে হবে। আপনাদের কাজের সাফল্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় ও আওতাধীন দফতর-সংস্থায় যে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে তা যেন ম্রিয়মান না হয়। সে দায়িত্বও আপনাদের।’

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক মাহমুদ, বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন করপোরেশনের চেয়ারম্যান কাজী হাসান আহমেদ, মৎস্য অধিদফতরের মহাপরিচালক কাজী শামস্ আফরোজ, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার ও মো. তৌফিকুল আরিফসহ মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা শাখার কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট প্রকল্প পরিচালকরা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত মন্ত্রণালয়ের একটি, মৎস্য অধিদফতরের আটটি এবং বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশনের দুটি প্রকল্পের ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হয়।

আইএইচআর/এসএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]