বাংলাদেশ থেকে আরও বেশি দক্ষ শ্রমিক নিতে সৌদিকে অনুরোধ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৪৯ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২১

সৌদি আরবে পাঠানোর জন্য কর্মীদের আরও দক্ষ করে তুলতে যথাযথ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে উল্লেখ করে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, আরও অধিক সংখ্যক দক্ষ কর্মী নেয়ার জন্য সৌদি আরবকে অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ। ঢাকায় নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত এসসা ইউসেফ এসসা আল দুহাইলানের কাছে এ অনুরোধে কথা তুলে ধরা হয়েছে।

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে তার সংসদ ভবন কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন এসসা ইউসেফ।

এ সময় তারা দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার, কোভিডকালীন উদ্ভূত বৈশ্বিক পরিস্থিতি, অভিবাসন ইস্যু, সংসদীয় সম্পর্কের উন্নয়ন, সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করেন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, দুদেশের সংসদ সদস্যদের পারস্পরিক অভিজ্ঞতা বিনিময়ের সংসদীয় সম্পর্ক আরও জোরদার করা সম্ভব।

স্পিকার আরও বলেন, কোভিডকালীন সময়েও অর্থনৈতিক উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় এবং বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের দৈনন্দিন জীবন স্বাভাবিক রাখতে প্রণোদনা ঘোষণার মাধ্যমে সময়োপযোগী কার্যক্রম গ্রহণ করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একজন ব্যক্তিও যেন খাদ্যাভাবে মৃত্যুবরণ না করে সেজন্য সারা দেশে খাদ্যসামগ্রী যথাসময়ে বিতরণ করেছে সরকার। সকলের জন্য করোনা ভ্যাকসিন নিশ্চিতকরণেও নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। সরকারের দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে কোভিড পরিস্থিতিতেও দেশে খাদ্যাভাব পরিলক্ষিত হয়নি।

কোভিডকালীন সময়ে সরকারের অর্থনীতির চাকা সচল রাখার প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন সৌদি রাষ্ট্রদূত এসসা ইউসেফ এসসা আল দুহাইলান।

তিনি বলেন, একত্রে কাজ করার জন্য দুদেশের মধ্যে সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ তৈরি করা প্রয়োজন। এর মাধ্যমে দুদেশের সংসদীয় সম্পর্কের অধিকতর উন্নয়ন হবে।

বাংলাদেশকে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বন্ধুপ্রতীম দেশ হিসেবে অভিহিত করে রাষ্ট্রদূত বলেন, পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

স্পিকার বলেন, অনেক সমস্যা থাকা সত্ত্বেও মিয়ানমারের রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দিয়ে ও তাদের প্রতি মানবিক ভূমিকা রেখে বিশ্বের বুকে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সৌদি আরবের সহযোগিতা কামনা করেন স্পিকার।

এইচএস/এসএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]