হাসপাতালে বেশি বিল দাবি, ৯৯৯ এর সহায়তায় রিকশাচালকের মুক্তি

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪০ এএম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১

হাসপাতালে বেশি বিল দাবি করায় জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল করেন এক সদ্যজাত সন্তানের পিতা। ফোন পেয়ে তাদের পাশে এগিয়ে আসে ঢাকার উত্তরা পূর্ব থানার পুলিশ। পুলিশের সহায়তায় বিল পরিশোধ করে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান ওই নবজাতকের দরিদ্র বাবা-মা।

জানা গেছে, বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৪টায় আশিক (২৪) নামে একজন কলার ঢাকার উত্তরার ৮ নম্বর সেক্টরের ইউনিক হসপিটাল থেকে ফোন করে জানান, তিনি পেশায় একজন রিকশাচালক। মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) তার গর্ভবতী স্ত্রীকে তিনি হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেদিন বিকেলে তার স্ত্রীর নর্মাল ডেলিভারি হয় এবং একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন।

পরদিন বিকেলে তিনি তার স্ত্রী সন্তানকে বাসায় নিতে চাইলে তাকে ১৮ হাজার টাকা বিল পরিশোধ করতে বলা হয়। কিন্তু তিনি একদিন হাসপাতালে অবস্থান এবং নর্মাল ডেলিভারির জন্য এতো টাকা বিল দাবি করার কারণ জানতে চান এবং এতো টাকা পরিশোধে অসম্মতি জানান। তখন হাসপাতাল থেকে তাকে জানানো হয় বিল পরিশোধ না করলে তিনি তার স্ত্রী সন্তানকে নিয়ে যেতে পারবেন না। শেষে তিনি কোনো উপায় না পেয়ে ৯৯৯ এ ফোন করেন।

৯৯৯ থেকে সংবাদ পেয়ে উত্তরা পূর্ব থানার একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। পরে উত্তরা পূর্ব থানার এস আই ফারুক আহমেদ ৯৯৯ কে ফোনে জানান তিনি হাসপাতালে গিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেন। কলার রিকশাচালক আশিকের আর্থিক অবস্থা বিবেচনায় ন্যূনতম বিল নেয়ার অনুরোধ জানান।

পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সাড়ে তিন হাজার টাকা বিল নিয়ে কলার এবং তার স্ত্রী-সন্তানকে ছাড়পত্র দেয়।

ইএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]