লালদিয়া চরে উসকানিদাতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৫:১৪ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ‘চট্টগ্রাম বন্দরের জায়গা অবৈধভাবে দখল করে থাকার সুযোগ নেই। লালদিয়ার চরে বর্তমানে যারা বসবাস করছে তাদের অধিকাংশই ভাড়াটিয়া ও অবৈধ দখলদার। প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা আমাদের কাছে আছে। এ ঘটনায় যারা উসকানি দিচ্ছে তাদের তালিকাও আমাদের আছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টায় চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন এগিয়ে যাচ্ছে। চট্টগ্রাম বন্দরও লয়েড লিস্টে এগিয়ে গেছে। আমাদের আরও জায়গা দরকার। সুষ্ঠু পরিবেশ দরকার। গুটিকয়েক মানুষের জন্য বন্দরের সুনাম নষ্ট হবে তা মেনে নেয়া যায় না। এই বাংলাদেশে কেউ দখল করে অবৈধভাবে ভোগ করবে তা হবে না।’

গত বছরের ৮ ডিসেম্বর ‘জরিপ অনুযায়ী’ চট্টগ্রাম বন্দর এলাকার লালদিয়ার চরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে আদালতের নির্দেশনা দুই মাসের মধ্যে বাস্তবায়নের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

চট্টগ্রামের পুলিশ কমিশনার, জেলা প্রশাসক, র‌্যাব কমান্ডার, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান ও সিটি করপোরেশনের প্রশাসকসহ সব বিবাদীদের রায় বাস্তবায়নে পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশনার পাশাপাশি সেবা সংস্থাগুলোকেও (ওয়াসা, বিদ্যুৎ এবং গ্যাস কর্তৃপক্ষ) এ সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন আদালত।

এরপর চলতি বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, হাইকোর্টের আদেশ অনুসারে সহসাই অবৈধ দখলদারদের বিদ্যুৎ, গ্যাস ও পানি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে উচ্ছেদ করা হবে।

সব ‘অবৈধ দখলদারদের’ অবিলম্বে ওই জায়গা ছেড়ে দেয়ারও অনুরোধ করা হয় ওই বিজ্ঞপ্তিতে।

বৃহস্পতিবার রাতে লালদিয়ার চরে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয় বলে জানান সেখানকার বাসিন্দারা।

২০১০ সালের ১৮ জুলাই হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে জনস্বার্থে করা এক রিট আবেদনে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ কর্ণফুলী নদী দখল, মাটি ভরাট ও নদীতে সব ধরনের স্থাপনা নির্মাণ বন্ধের নির্দেশ দেন।

আবু আজাদ/এসএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]