বিসিআইসির প্রতিষ্ঠানগুলোকে লাভজনক করার তাগিদ শিল্পমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:১৪ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) আওতাধীন প্রতিষ্ঠানসমূহকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে ফিরিয়ে আনার তাগিদ দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিসিআইসির অধীনস্থ প্রতিষ্ঠানসমূহের বিরাজমান সমস্যা, নিরবচ্ছিন্ন উৎপাদন, সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা এবং লাভজনক করার জন্য বার্ষিক ক্রয় পরিকল্পনা পর্যালোচনাসহ সার্বিক বিষয়াদি সম্যক বিশ্লেষণ সংক্রান্ত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শিল্পসচিব কে এম আলী আজমের সভাপতিত্বে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘সরকারের উন্নয়নের বড় অংশীদার হচ্ছে শিল্প মন্ত্রণালয়, সে বিষয়টি বিবেচনায় রেখে বিসিআইসি প্রতিষ্ঠানসমূহকে লাভজনক অবস্থানে যেতে হবে।’ শিল্পমন্ত্রী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘শুধু চাকরির খাতিরেই চাকরি না করে দেশের কথা বিবেচনা করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিসিআইসির আওতাধীন প্রতিষ্ঠানসমূহের বার্ষিক ক্রয় পরিকল্পনা কার্যক্রমের সময়সূচি নির্ধারণ করে তা দ্রুত শেষ করতে হবে। টেন্ডার প্রক্রিয়াও নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করতে হবে।’

সভায় বিসিআইসির চেয়ারম্যান মো. এহছানে এলাহী বিসিআইসির অধীনস্থ চালু সার কারখানা, সিমেন্ট কোম্পানি, পেপার মিলসমূহের সার্বিক অগ্রগতিসহ বার্ষিক ক্রয় পরিকল্পনা কার্যক্রম তুলে ধরেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বিসিআইসির অধীনস্থ সার কারখানাসহ অন্যান্য কারখানায় নিরবচ্ছিন্ন উৎপাদন ও সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় কোনো দীর্ঘসূত্রিতা করা যাবে না। সার সরবরাহ ও সংরক্ষণে কোনো প্রকার অব্যবস্থাপনা যাতে না হয়, সেদিকে সকলকে লক্ষ্য রাখতে হবে। বার্ষিক ক্রয় কার্যক্রমে যাতে কোনো সিন্ডিকেট গড়ে না ওঠে এবং দীর্ঘসূত্রিতা না হয়, সেদিকেও সকলকে দৃষ্টি রাখতে হবে।’

এসময় শিল্পসচিব বলেন, ‘বিসিআইসির পুরনো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে, প্রতিষ্ঠানকে লাভজনক করতে এবং সারের উৎপাদন খরচ কমিয়ে আনতে হবে।’ এক্ষেত্রে বিসিআইসির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

এনএইচ/ইএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]