পার্বত্য এলাকা ‘শাস্তিমূলক কর্মস্থল’, এ মনোভাব পরিবর্তনের সুপারিশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৪৩ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

সরকারি-কর্মকর্তাদের জন্য পার্বত্য এলাকা ‘শাস্তিমুলক কর্মস্থল’- এই দৃষ্টিভঙ্গী ও বিজ্ঞাপন বন্ধ বা পরিবর্তন চায় সংসদীয় কমিটি। এজন্য ওই সব জেলায় চাকরি নিয়ে অপপ্রচার ও নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি পরিহারের ব্যাপারে উদ্যোগ নেয়ার জন্য বলেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। কমিটির সভাপতি মো. দবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উ শৈ সিং, দীপংকর তালুকদার, কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, মীর মোস্তাক আহমেদ রবি এবং বাসন্তী চাকমা অংশ নেন।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, কমিটির সদস্য ও পার্বত্য রাঙ্গামাটির সংসদ সদস্য দীপঙ্কর তালুকদার বৈঠকে প্রসঙ্গটি তোলেন। টেলিভিশনে প্রচারিত তাজা চায়ের বিজ্ঞাপনচিত্রে ‘আপনাকে ওভারনাইট বান্দরবান পাঠিয়ে দেব’ সংলাপের প্রসঙ্গ টেনে ওই সংসদ সদস্য বলেন, ‘এ ধরনের বিজ্ঞাপনে পার্বত্য অঞ্চলের বিষয়ে জনমনে বিরূপ ধারণা সৃষ্টি হয়। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে পার্বত্য এলাকায় শাস্তিমূলক বদলি হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাবে। যার কারণে এ ধরনের প্রচারণা বন্ধ হওয়া দরকার।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কমিটির সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা সাংবাদিকদের বলেন, ‘এসব প্রচারণার কারণে এলাকার ওপর একটি বিরূপ ধারণার সৃষ্টি হতে পারে। যার কারণে আমরা মন্ত্রণালয়কে বলেছি এ ধরনের প্রচারণা যাতে বন্ধ হয় তার জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করতে।’

সংসদ সচিবালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈঠকে সরকারি কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারীর দাফতরিক কাজের ব্যর্থতা হিসেবে পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় পদায়ন করা হবে- এ জাতীয় প্রচার প্রচারণা বন্ধ করতে তথ্য মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে কমিটি পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ মাতৃভাষায় শিক্ষাদানের লক্ষ্যে স্ব স্ব আঞ্চলিক ভাষায় অভিজ্ঞ শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ করেছে। এছাড়া শিক্ষা কার্যক্রম যথাযথভাবে পরিচালনার লক্ষ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী শিক্ষকদের মধ্য হতে পদোন্নতির মাধ্যমে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার বিষয়টি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও পাবলিক সার্ভিস কমিশনকে পারস্পরিক আলোচনা করে দ্রুত নিষ্পন্ন করতে কমিটি সুপারিশ করা হয়।

এইচএস/ইএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]