মসজিদের পাশেই চিরনিদ্রায় শায়িত সৈয়দ আবুল মকসুদ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৭:৪৮ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আজিমপুর কবরস্থানের মেয়র হানিফ মসজিদের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন প্রখ্যাত লেখক, কলামিস্ট, সাংবাদিক ও গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় তার দাফন সম্পন্ন হয়। এসময় তার ছেলে সৈয়দ নাসিফ মকসুদসহ আত্মীয়স্বজন উপস্থিত ছিলেন।

সৈয়দ আবুল মকসুদের ছেলে নাসিফ মকসুদ বলেন, ‘১৯৮৮ সালে দাদাকেও এই কবরস্থানে দাফন করা হয়। আমার বাবা প্রায় সময় এখানে আসতেন। দাদার কবর জিয়ারত করতেন।’

দাফন শেষে সৈয়দ আবুল মকসুদের আত্মার শান্তি কামনা করে মোনাজাত করা হয়। এসময় অনেককে কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা যায়।

jagonews24

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন দেশের খ্যাতিমান কলাম লেখক, গবেষক, প্রাবন্ধিক ও সাংবাদিক সৈয়দ আবুল মকসুদ (৭৪)।

১৯৪৬ সালের ২৩ অক্টোবর মানিকগঞ্জের এলাচিপুরে সৈয়দ আবুল মাহমুদ ও সালেহা বেগম দম্পতির ঘরে জন্ম নেয়া আবুল মকসুদ ঢাকা কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক শেষ করার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক করেন। পরে তিনি তৎকালীন পশ্চিম জার্মানি থেকে সাংবাদিকতা বিষয়ে ডিপ্লোমা করেন।

১৯৬৪ সালে এম আনিসুজ্জামান সম্পাদিত সাপ্তাহিক নবযুগ পত্রিকায় সাংবাদিকতার মাধ্যমে সৈয়দ আবুল মকসুদের কর্মজীবন শুরু হয়। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ বার্তা সংস্থায় যোগ দেন তিনি। ২০০৮ সালের ২ মার্চ বার্তা সংস্থার সম্পাদকীয় বিভাগের চাকরি ছেড়ে দেন। তবে জাতীয় দৈনিকগুলোতে সমাজ, রাজনীতি, সাহিত্য-সংস্কৃতি নিয়ে কলাম লেখা চালিয়ে যেতে থাকেন তিনি।

ইএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - j[email protected]