পণ্য বিক্রিতে অনিয়ম : ১০৬ প্রতিষ্ঠানকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৫ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

ভোক্তা স্বার্থবিরোধী বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অপরাধে ১০৬টি প্রতিষ্ঠানকে ১০ লাখ ৩ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়েছে।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সারাদেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের বাজারে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর পরিচালিত অভিযানে এসব প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়।

রাজধানীর গুলশান থানা এলাকা ও ঢাকা জেলার সাভার উপজেলায় ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করেন ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (উপ-সচিব) মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার, প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. মাসুম আরেফিন, ঢাকা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল জব্বার মন্ডল ও ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ফাহমিনা আক্তার।

এছাড়া ঢাকার বাইরে বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক ও জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালকের নেতৃত্বে বিভিন্ন বাজারে তদারকি ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে। অভিযানকালে মাস্কসহ আলু, চাল, পেঁয়াজ, ভোজ্যতেল, আদাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য যৌক্তিক মূল্যে বিক্রি হচ্ছে কি না তা মনিটরিং করা হয়।

এ সময় পণ্যের মূল্যতালিকা প্রদর্শন না করা, মূল্যতালিকার সাথে বিক্রয় রসিদের গরমিল, পণ্যের ক্রয় রসিদ সংরক্ষণ না করা, অনিবন্ধিত ওষুধ, মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ও পণ্য, নকল পণ্য, ওজনে কারচুপিসহ ভোক্তার স্বার্থবিরোধী বিভিন্ন অপরাধে সারাদেশ ১০৬টি প্রতিষ্ঠানকে ১০ লাখ ৩ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

তদারকিকালে মাস্ক, চাল ,আলু, পেঁয়াজ ও ভোজ্যতেলের মূল্য নিয়ে কারসাজি না করা এবং বাধ্যতামূলকভাবে পণ্যের ক্রয় রসিদ ও মূল্যতালিকা প্রদর্শনের বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সচেতন ও সতর্ক করা হয়।

এ প্রসঙ্গে অধিদফতরের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহা বলেন, নিয়মতান্ত্রিক ও নৈতিকতার সাথে ব্যবসা পরিচালনাকারী সব ব্যবসায়ীকে এ অধিদফতর সব সময় সাধুবাদ জানায়। ভোক্তা ও ব্যবসাবান্ধব একটি সুশৃঙ্খল বাজারব্যবস্থা গড়ে তোলার জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

ইএআর/এমএসএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]