লেখক মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনা নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি আসকের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৪৫ এএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কারাগারে থাকা অবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আসক এ দাবি জানায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের আওতায় র্যাবের করা মামলায় কারাগারে থাকা লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যু হয়ছে। তার এ মৃত্যুতে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) ক্ষোভ প্রকাশ করছে এবং নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে মৃত্যুর কারণ উদঘাটনের জোর দাবি জানাচ্ছে।

এতে আরও বলা হয়, ২০২০ সালের মে মাসে মুশতাক আহমদকে গ্রেফতার করে র্যাব। পরে রমনা থানায় লেখক মুশতাকসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে র্যাব ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অধীনে তিনটি মামলা করে। এ মামলায় গ্রেফতার অন্যরা জামিন পেলেও মুশতাক ও কার্টুনিস্ট কিশোর জামিন পাননি। সংবিধান স্বীকৃত গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও বাকস্বাধীনতার সাথে সাংঘর্ষিক বহুল সমালোচিত এ আইনের অধীনে ডে প্রক্রিয়ায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে এবং দীর্ঘদিন কারাগারে রাখা হয়েছে, তা সমালোচনা ও আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

এতে সংবাদকর্মী, সংস্কৃতিকর্মী, লেখক, গবেষক ও জনগণের মধ্যে এক ধরনের আতঙ্কের উদ্রেক ঘটেছে, যা মত প্রকাশ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ক্ষেত্রে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলেছে। নিঃসন্দেহে মুশতাক আহমদের মৃত্যু এ আতঙ্ককে আরও গভীর করবে। আসক দ্রুততার সঙ্গে লেখক মুশতাকের মৃত্যুর সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত নিশ্চিতের দাবি জানাচ্ছে। একই সঙ্গে কার্টুনিস্ট কিশোরকে অনতিবিলম্বে মুক্তি দেয়া আহ্বান জানায় আসক।

এসএম/এমএসএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]