রাজস্ব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঘুষ নেয়ার অভিযোগের সত্যতা পায়নি দুদক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১৪ এএম, ০১ মার্চ ২০২১
ফাইল ছবি

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের রাজস্ব কর্মকর্তা কাকলী রানী শিকদারের বিরুদ্ধে ঘুষ নিয়ে রাজস্ব ক্ষতির অভিযোগের সত্যতা পায়নি দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের ভ্যারিফাইড ফেসবুক পেজে এ তথ্য জানানো হয়।

রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুদকের ঢাকা-১-এর সহকারী পরিচালক মো. আতিকুর আলমের নেতৃত্বে একটি দল অভিযোগের সত্যতা উদঘাটনে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটের তেজগাঁও সার্কেলে অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানকালে দুদক টিম অভিযোগের সত্যতা উদঘাটনের জন্য প্রাথমিক তথ্য প্রমাণ সংগ্রহ করে।

জানা যায়, অভিযুক্ত কাকলী রানী শিকদার সেখানে বর্তমানে কর্মরত নেই। তিনি বেশকিছু দিন আগে অন্যত্র বদলি হয়েছেন। অভিযানকালে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পরীক্ষা করে অভিযোগের সত্যতা প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ার মতো কোনো তথ্য প্রমাণ পায়নি দুদক টিম।

একই সঙ্গে তেজগাঁও অফিস থেকে এ সংক্রান্ত আরও তথ্য প্রমাণ সংগ্রহ করে বিষয়টি সম্পর্কে অধিকতর নিশ্চিত হওয়ার লক্ষ্যে সংগ্রহীত রেকর্ডপত্র ও তথ্য প্রমাণসমূহ বিস্তারিত পর্যালোচনা করে কমিশন বরাবর পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দাখিল করবে দুদক টিম।

এছাড়া রোববার দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিটে আগত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সারাদেশে ১৭টি অভিযোগের বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

এদিন বরিশাল পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কর্মচারী অমল চন্দ্র পাল ও মো. জামাল মৃধার বিরুদ্ধে নতুন সংযোগ প্রদান, খুঁটি বসানো, লাইন স্থাপন, মিটার বরাদ্দ ও প্রয়োজনীয় কাগজ প্রদানের সময় অতিরিক্ত অর্থ আদায় ও ঘুষ দাবির অভিযোগের প্রমাণ পায় দুদকের এনফোর্সমেন্ট টিম।

এসএম/এমআরআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]